অটিজম ও নিউরো প্রতিবন্ধিতা বিষয়ে জুরাছেিড়তে কর্মশালা

272

॥ জুরাছড়ি প্রতিনিধি ॥

ন্যাশনাল একাডেমি ফর অটিজম এন্ড নিউরো ডেভেলপমেন্টাল ডিজএ্যাবিলিটিজ এবং মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এর যৌথ আয়োজনে জুরাছড়ি উপজেলাধীন খাগড়াছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে অটিজম ও নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধিতা বিষয়ক দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৫ মে) অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী ওরিয়েন্টেশন কর্মশালায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, প্রথাগত নেতৃত্ব হেডম্যান কর্বারী ও জুরাছড়ি উপজেলার সাংবাদিক বৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালায় মাস্টাার ট্রেইনার ছিলেন পটিয়া সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ডঃ আবুল মনসুর চৌধুরী। সুবলং খাগড়াছড়ি বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক ধর্মচন্দ্র চাকমা সভাপতিত্বে এতে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন জুরাছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার জুনায়েত আহমেদ। সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন আমিনুল ইসলাম যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা জুরাছড়ি।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার সর্বশেষ হিসেব মতে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার প্রায় ১৫ ভাগই কোন না কোন ধরনের প্রতিবন্ধী। সকলের প্রতিবন্ধিতা বা প্রতিবন্ধিত্বের মাত্রা সমান নয়। প্রতিবন্ধী শিশুরা হচ্ছে আমাদের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু, এসব অটিজম শিশুদের আমাদের বিশেষ যতœ নিতে হবে। সামাজিকভাবে এসব শিশুদের কখনো হেয়প্রতিপন্ন করা যাবেনা। বক্তারা আরো বলেন, প্রায় সময় দেখা যায় গ্রামের প্রশিক্ষন বিহীন ধাত্রীদের দিয়ে গর্ভবর্তী প্রসূতি মহিলাদের ডেলিভারি করা হয় ফলে দেখা যায় অদক্ষতার কারণে একটি সুন্দর শিশু অটিজম হয়। এছাড়াও স্বাভাবিক ডেলিভারি না করে অধিকাংশ মহিলারা বর্তমানে সিজার করে থাকেন তাই এসব শিশুরা ও অটিজম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে প্রশিক্ষণে উল্লেখ করেন।

একটি শিশু যখন চোখে চোখ রেখে না থাকানো। আনন্দেরর বিষয়ে আনন্দ না পাওয়া। একই কাজ বার বার করা। নিষেধ করলে আরো বেশি করা। জিনিস পত্র ছোড়া বা ভেঙ্গে ফেলা সহ বেশ কয়েকটি অটিজমের লক্ষণ রয়েছে, এসব বৈশিষ্ট্য গুলো দেখা দিলে অভিজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা করানোর জন্য পরামর্শ প্রদান করেন।