অস্বচ্ছল পরিবারকে স্বাবলম্বি করতে ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন

349

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥
একটি অস্বচ্ছল পরিবারকে স্বাবলম্বি করতে ব্যক্তি উদ্যোগে সেলাই মেশিন দিলেন রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম। রাঙামাটি আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মী প্রভাত কুমার নাথ ও তার স্ত্রী যাতে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বাড়তি কিছু আয় করে সংসার আরো স্বচ্ছল রাখতে পারে সে লক্ষ্যে ভাইস চেয়ারম্যান (প্যানেল) নাসরিন ইসলাম তার ব্যাক্তিগত উদ্যোগে প্রভাতকে উপহার স্বরূপ দিলেন একটি সেলাই মেশিন।

বুধবার (১১নভেম্বর) সকালে ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম শহরের কেরানি পাহাড় এলাকায় প্রভাতের বাসায় গিয়ে সেলাই মেশিন সেটটি তার হাতে তুলে দেন। সেলাই মেশিন সেটটি হাতে পেয়ে প্রভাত ও তার স্ত্রী আবেগ আপ্লুত কণ্ঠে বলেন, সেলাই মেশিনটি আমার জীবনের একটি বড় প্রাপ্তি। হয়তো মেশিনটি অনেকের কাছে মূল্যহীন, কিন্তু আমার কাছে এখন এটি সোনার হরিণ। এটি দিয়ে আমার সংসারে বাড়তি কিছু আয় হবে এবং এই বাড়তি আয়ের একটি অংশ আমার ব্যাবসা ও সংসারে ব্যয় করতে পারবো। তিনি মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিনকে আর্শিরবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান নাসরিন ইসলাম বলেন, স্থানীয় এক সাংবাদিককের কাছ থেকে জানতে পারালাম, আওয়ামী লীগের তৃণমূল কর্মী প্রভাত দাদা বর্তমানে শহরের কেরানি পাহাড় এলাকায় ছোট্ট একটি জায়গায় এক ছাদের নীচে বসতবাড়ী ও ছোট্ট দোকান নিয়ে স্ত্রী-ছেলে-মেয়ে নিয়ে তার দিন কাটছে। বিষয়টি শুনে খবর নিয়ে আরো জানতে পারি প্রভাত দাদা ও তার স্ত্রী সেলাইয়ের কাজ জানে কিন্তু মেশিন নেই। আমি মানব সেবার লক্ষ্যে জনপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছি দুঃস্থ ও অসহায়দের কল্যাণে সবসময় কাজ করাই আমার কর্তব্য, তাই আর দেরি না করেই একটি সেলাই মেশিন সেট নিয়ে প্রভাত দাদার বাসায় গিয়ে তার হাতে তুলে দিয়েছি।

এ ধরনের মহৎ কাজগুলো করতে পারলে মানসিক শান্তি পাই। চেষ্টা করি নিজের সাধ্যের মধ্যে সামাজিক উন্নয়ন কাজগুলো যতটুকু করার করবো। তিনি বলেন, দুঃস্থ মানুষদের কল্যানে সমাজের বৃত্তবানরা এগিয়ে আসলে সমাজ থেকে সকল বৈষম্য এবং দারিদ্রতা দূর করা সম্ভব। তিনি সমাজের উন্নয়নে বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।