আগামী সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার সম্ভব নয়: সাবেক সিইসি ড. এটিএম শামসুল হুদা

584

স্টাফ রিপোর্ট- ১ এপ্রিল ২০১৭, দৈনিক রাঙামাটি (প্রেস বিজ্ঞপ্তি):  আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট গ্রহণ সম্ভব নয় বলে মনে করেন সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার ড. এটিএম শামসুল হুদা। শনিবার (১ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর তেজগাঁওস্থ বিএফডিসিতে নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার বিষয়ক এক বিতর্ক অনুষ্ঠানে অতিথির বক্তব্যে এ অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন ব্যবহারের মাধ্যমে নির্বাচনি ব্যয় হ্রাস, কম সময়ে ভোটগ্রহণ, ভোট নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি হ্রাসের মতো নানাবিধ সুবিধা থাকলেও এ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে আস্থার সংকট রয়েছে বলে মনে করেন ড. এটিএম শামসুল হুদা। এ কারণেই ইভিএম ব্যবহার নিয়ে নানামুখী প্রশ্ন উঠছে বলে মন্তব্য তার।

দেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির অভাব রয়েছে বলে মনে করেন এই সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার। তাই রাজনৈতিক দলসহ নির্বাচন সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে পর্যাপ্ত ধারণা প্রয়োজন। এসব বিবেচনায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইভিএম-এর মাধ্যমে ভোটগ্রহণ সম্ভব নয় বলে মনে করছেন তিনি।

ড. শামসুল হুদা আরও বলেন, ‘পরীক্ষামূলকভাবে স্থানীয় সরকারের নির্বাচনসহ কয়েকটি নির্বাচনে আগামী কয়েক বছর ইভিএম-এর ব্যবহারের মাধ্যমে ভোটারদের এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে পরিচিত করতে হবে।’

যদিও নির্বাচনকে সুষ্ঠু করার জন্য ইভিএম কেবল একটি উপাদান উল্লেখ করেছেন ড. এটিএম শামসুল হুদা। এর পাশাপাশি ভালো আইন, নির্বাচন কশিমনের দক্ষতা, নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সততা ও নিরপেক্ষতা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যথাযথ দায়িত্ব পালন ও রাজনৈতিক অঙ্গীকারের প্রয়োজন রয়েছে বলে অভিমত তার।

তিনি বলেন, ‘দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে নির্বাচনে হেরে যাওয়ার পর ফলাফল গ্রহণ না করার মানসিকতা দুঃখজনক। একই সঙ্গে বিজয়ীরা রাষ্ট্র ও সমাজের সবকিছুর ওপর একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ নিয়ে থাকে তাই কেউ হেরে যাওয়ার ঝুঁকি নিতে চায় না।’

ছায়া সংসদে সরকারি দল বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি তাদের বিরোধী দল ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে পরাজিত করে। অনুষ্ঠান শেষে বিতার্কিকদের ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। বিতর্ক অনুষ্ঠানে বিচারক ছিলেন অধ্যাপক আবু রইস, ড. এসএম মোর্শেদ এবং মোস্তাফিজুর রহমান খান। সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা  ব্যুরো প্রধান