আন্তঃ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ সংসদীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা

646


আন্তঃ ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান ও অনুষ্ঠানের স্পীকার ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণসহ অন্যান্য অতিথিদের সাথে বিজয়ী বিতার্কিকদের দেখা যাচ্ছে।

স্টাফ রিপোর্ট- ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, দৈনিক রাঙামাটি (প্রেস বিজ্ঞপ্তি): ঢাকা অঞ্চলের ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ সমূহের মধ্যে ০৩ (তিন) দিনব্যাপী আয়োজিত আন্তঃক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ সংসদীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা- ২০১৭ এর আঞ্চলিক পর্যায়ের ফাইনাল আজ ১২ সেপ্টেম্বর, মঙ্গালবার অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা ক্যান্ট গার্লস পাবলিক স্কুল ও কলেজে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা ক্যান্টমেন্ট গালর্স পাবলিক স্কুল ও কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান, পিএসসি, টিই। সংসদীয় পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত বিতর্ক প্রতিযোগিতায় স্পীকার হিসেবে প্রতিযোগিতাটি পরিচালনা করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। স¦াগত বক্তব্য রাখেন ঢাকা ক্যান্টমেন্ট গার্লস পাবলিক স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল মোঃ রেজাউল ইসলাম, পিএসসি, এইসি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আদমজী ক্যান্টমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ আহমেদ আলী, শহীদ বীর উত্তম লেঃ আনোয়ার গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ কর্নেল মোঃ রশিদুল ইসলাম খান, মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল সৈয়দ এ কে সাব্বির আহমেদ, আদমজী ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুলের অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল মোঃ মাসুদ রানা, পিএসসি, এইসি।

প্রধান অতিথিদের বক্তব্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান বলেন, বিতর্ক প্রতিযোগিতা জ্ঞানের প্রখরতা বাড়ায়, নৈতিকতা শিক্ষা দেয়, নিরপেক্ষ মানসিকতা তৈরি ও অন্যের মতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে সহযোগিতা করে। বিতর্ক চর্চার মাধ্যমে আত্মবিশ্বাসী হয়ে ভবিষ্যৎ সু-নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব। তাই বিতর্ক চর্চাসহ এ ধরণের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড অব্যহত রাখার ওপর গুরুত্বারোপ করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান।

আন্তঃ ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ ওয়াহিদ-উজ-জামান ও ঢাকা ক্যান্টমেন্ট গার্লস পাবলিক কলেজের অধ্যক্ষ লেঃ কর্নেল মোঃ রেজাউল ইসলাম এর কাছ থেকে সম্মাননা স্বারক গ্রহণ করছেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ কে।

ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, জঙ্গী দমনে গ্রেফতার, জেলহাজত বা হত্যা কোনো সমাধান নয়। জঙ্গীবাদ থেকে ফিরিয়ে আনতে বিপদগামী তরুণদের কাউন্সিলিং, সৃজনশীলতা, বৃত্তিমূলক শিক্ষা, খেলাধূলো, বিতর্ক প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে তাদেরকে নিয়োজিত রাখতে হবে। তার জন্যে পিতা-মাতা, শিক্ষক, মসজিদের ইমাম, ইসলামী স্কলার, জনপ্রতিনিধিসহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে সম্পৃক্ত করে জঙ্গিবিরোধী কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। জনাব কিরণ আরও বলেন সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে সোশ্যাল মিডিয়ায় তরুণ ও কিশোরদের অতিমাত্রায় আসক্তির কারণে তারা বিভিন্ন ধরনের গ্যাং কালচারে জড়িয়ে মাদকাসক্তি, হত্যা-খুন এর মতো জঘন্য কাজে জড়িয়ে পড়ছে। এর থেকে পরিত্রানের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারে প্রয়োজনীয় নিয়ন্ত্রণ জরুরী।

স্কুল পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় ‘ধর্মের সঠিক জ্ঞান প্রদানের ব্যর্থতাই যুব সমাজকে ধর্মীয় উগ্রবাদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে’ শীর্ষক বিষয়ে আদমজী ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুলকে পরাজিত করে বিজয়ী হয় শহীদ বীর উত্তম লেঃ আনোয়ার গালর্স কলেজ। এতে শ্রেষ্ঠ বক্তা হয় শহীদ বীর উত্তম লেঃ আনোয়ার গালর্স কলেজের দলনেতা মুনতাহা মাশিয়াত। কলেজ পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় ‘নৈতিকতা ও দেশত্ববোধ জাগ্রত করাই তরুণ প্রজন্মের শিক্ষার প্রধান চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক বিষয়ে আদমজী ক্যান্টমেন্ট কলেজকে পরাজিত করে বিজয়ী হয় মিরপুর ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ। এতে শ্রেষ্ঠ বক্তা হয় মিরপুর ক্যান্টমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের দলনেতা ইশরাত জাহান সেতু।প্রতিযোগিতা শেষে অংশগ্রহণকারীদের মাঝে ট্রফি, ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরো প্রধান।