আয়-ব্যয় সমীক্ষায় বন্দুকভাঙ্গা ইউপিতে মত বিনিময়

243

p.2

স্টাফ রিপোর্টার, ৬ মার্চ ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট (এনআইএলজি) কর্তৃক পরিচালিত পার্বত্য জেলাসমুহের ইউনিয়ন পরিষদের আয় এবং ব্যয়ের প্রকৃতির সমীক্ষা শীর্ষক গবেষণার উপাত্ত সংগ্রহ বিষয়ে রাঙামাটি সদর উপজেলার ৫নং বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদেও উদ্যোগে এক মত বিনিময় সভা শনিবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বরুন কান্তি চাকমার সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন এনআইএলজি’র পরিচালক (গবেষণা ও পরিকল্পনা) মো. ইলিয়াস।

সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউটের উপ-পরিচালক মো. আবদুল খালেক, রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অরুন কান্তি চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতা চাকমা, রাঙামাটি সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন, বালুখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিজয় গিরি চাকমা। রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় বন্দুকভাঙ্গা ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ, হেডম্যান, কার্বারী, ব্যবসায়ী, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যরা অংশ নেন।

মত বিনিময় সভায় ইউনিয়ন পরিষদের কর আদায়, স্থানীয় জনগণের সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধির ওপর বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। এছাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও সরকারের সেবাসমুহ জনসাধারণের দোরগোড়ায় পৌছে দিতে ইউনিয়ন পরিষদ, জনপ্রতিনিধি ও এনআইএলজির কর্মকর্তাদের দায়িত্বশীল হওয়ার আহবান জানানো হয়। এ সময় দেশের প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের জন্য একজন হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা ও একজন উপ-সহকারী প্রকৌশলীর পদ সৃষ্টির প্রস্তাব উত্থাপন করেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। জনপ্রতিনিধিদের এই প্রস্তাব সরকারের কাছে পাঠানো হবে বলে আশ্বাস দেন এনআইএলজির কর্মকর্তারা।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান