ইভিএম নিয়ে ভোটার বিভ্রান্তি দূর করতে নানামুখি উদ্যোগ

361

॥ দীপ্ত হান্নান ॥
ইলেক্ট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এ রাঙামাটি পৌরবাসীর জন্য একেবারে নতুন। এবারেই প্রথম ইভিএমে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ভোটাররা। ইভিএম নিয়ে বিভ্রান্তি দুর করতে নানামুখি উদ্যোগ নিয়েছে জেলা নির্বাচনী অফিস। প্রাথমিকভাবে সোমবার নির্বাচন অফিসে আয়োজন করা হয় প্রদর্শনী ভোট, এ ছাড়া আগামী ১২ ফেব্রুয়ারী মক (অনুশীলনমূলক) ভোট অনুষ্ঠিত হবে রাঙামাটি পৌরসভার প্রতিটি কেন্দ্রে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সব ভোটকেন্দ্রে এ আয়োজন করা হচ্ছে। এ পৌরসভায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ১৪ ফেব্রুয়ারী।

নির্বাচন অফিস সুত্রে জানা গেছে, এই অনুশীলন ভোটদানের মাধ্যমে ভোটারদের ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) সঙ্গে পরিচয় করে দেওয়া হবে। কীভাবে ইভিএমে ভোট দেওয়া যায়, তা শিখতে পারবেন ভোটাররা।
এছাড়া ৮ ফেব্রুয়ারী-১১ ফেব্রুয়ারী পৌরসভার সব ভোটকেন্দ্রে ইভিএম প্রদর্শনী উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। ভোটারদের ইভিএমে ভোটদানে আগ্রহী ও সচেতন করতে এ আয়োজন। পৌরসভায় মোট ভোটকেন্দ্র ৩১টি। মোট ভোটার হচ্ছেন ৬২,৯১৩ জন। এই পৌরসভায় মেয়র পদে ৫জন ও সংরক্ষিতসহ কাউন্সিলর পদে ৬০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

রাঙামাটির সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা শফিকুর রহমান বলেন, ১২ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার বেলা ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত পৌরসভার সবকটি ভোটকেন্দ্রে মক ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ভোটারদের সচেতন ও ইভিএমে অভ্যস্ত করতে এই আয়োজন করা হয়েছে। এটি পরীক্ষার আগে টেস্ট পরীক্ষার মতো, যাতে ভোটের দিনে ভোটারদের কোনও ধরনের বেগ পেতে না হয়। মক ভোটের ইভিএমে কোন প্রার্থী বা মার্কা উল্লেখ থাকবে না।