ঈদে পর্যটক বরণে প্রস্তুত কাপ্তাইয়ের বিনোদন কেন্দ্রগুলো

395

অর্ণব মল্লিক

ঈদের ছুটিকে কেন্দ্র করে পর্যটক বরণে প্রস্তুত অপরূপ সৌন্দর্য্যের লীলাভূমি কাপ্তাই উপজেলার বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় চির চেনা রূপে ফিরবে উপজেলার ট্যুরিস্ট স্পটগুলো; এমনটাই প্রত্যাশা পর্যটন সংশ্লিষ্টদের। অন্যদিকে পর্যটকদের সব ধরনের নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত সংশ্লিষ্ট প্রশাসন।

কাপ্তাই উপজেলার অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটনস্পট লেকভিউ বিনোদন কেন্দ্র, লেকশোর পর্যটন স্পট, প্রশান্তি পার্ক, জুম রেস্তোরা, রিভার ভিউ পার্ক সহ বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে ভ্রমণ করতে পছন্দ করেন পর্যটকরা। গত শুক্রবার কাপ্তাইয়ে বেশ কয়েকটি পর্যটন কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় ঈদকে সামনে রেখে নতুন রূপে সাজানো হচ্ছে প্রায় সবকয়টি পর্যটনকেন্দ্র গুলোকে। এদিকে কাপ্তাইয়ে নতুন করে নিস্বর্গ রিভার ভ্যালি নামে একটি পর্যটন কেন্দ্রের যাত্রা শুরু করা হয়েছে। যেখানে বাঁশ দিয়ে কারুকার্য করে পর্যটককের জন্য আকর্ষনীয় করে গড়ে তোলা হয়েছে। বর্তমানে পর্যটকদের আগমনে প্রস্তুত নিস্বর্গ রিভার ভ্যালী।

এছাড়া কাপ্তাইয়ে পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষন টেক্সটাইল মার্কেটগুলোও তাদের প্রস্তুতি সেরে নিয়েছে। পর্যটকদের চাহিদা মেটাতে বাড়তি প্রস্তুতি নিচ্ছেন পর্যটনখাত সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। এছাড়া ঈদে কাপ্তাইয়ে আগত পর্যটকদের লেকে ভ্রমনের জন্য বোট গুলোকে প্রস্তুত করা হচ্ছে বলে জানান, কাপ্তাইয়ে বোট মালিক সমিতির নেতারা।

নবনির্মিত পর্যটন কেন্দ্র কাপ্তাই নিস্বর্গ ভ্যালির উপদেষ্টা মোঃ নাছির উদ্দীন জানান, ঈদে আমাদের নতুন এই রিসোর্টে প্রচুর পর্যটক আসবে, এমনটাই ধরণা করছি আমরা। পর্যটকদের সর্বোচ্চ আনন্দ দিতে আমরা প্রস্তুত রয়েছি। এদিকে কাপ্তাই অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন কেন্দ্র জুম রেস্তোরার দায়িত্বরত ম্যানেজার এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঈদকে সামনে রেখে আকর্ষনীয় করে সাজিয়ে তোলা হয়েছে পর্যটন কেন্দ্রটি।

ঈদে পর্যটকদের আগমনে মুখরিত হয়ে উঠবে এমন প্রত্যাশা আমাদের। কাপ্তাই প্রশান্তি পার্কের এক কর্মকর্তার সাথে কথা হলে তিনি জানান, করোনায় আমাদের যে ক্ষতি হয়েছে ঈদে পর্যটকদের আগমনে ধীরে ধীরে তা কমে আসবে বলে মনে করছি। তবে করোনা সংক্রমণ কমে এলেও আমরা সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে অনুরোধ করেই পর্যটন কেন্দ্রের কার্যক্রম পরিচালনা করবো।