এলাকার উন্নয়ন চাহিদা নিরূপনে উন্নয়ন বোর্ডে গণশুনানী অনুষ্ঠিত

350

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমার সভাপত্বিতে গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে এই গণশুনানি অনুষ্ঠিত হয়। গণশুনানিতে রাঙামাটি সদর, লংগদু ও নানিয়ারচর উপজেলার দুর্গম ও প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আগত সেবা প্রত্যাশী সমাজের জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অংশগ্রহণ করেন। এসময় বোর্ডের চেয়ারম্যান গণশুনানিতে অংশগ্রহণ করার জন্য উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং গণশুনানিতে অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে উন্মুক্ত আলোচনা করা হয়।

চেয়ারম্যান বলেন, দুর্গম পার্বত্য এলাকায় যেখানে অন্ধকার রয়েছে সেখান সোলার বিদ্যুতের মাধ্যমে আলোকিত করা হবে। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান কার্যালয়স্থ মাননীয় চেয়াম্যান এর দপ্তরে গণশুনানি অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ স্লোগানের অংশ হিসেবে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দুর্গম এলাকায় যেখানে জাতীয় গ্রীড বিদ্যুৎ পৌঁছানোর কোন সুযোগ নেই সেসব এলাকায় সোলার বিদ্যুৎ বিতরণ করা হবে। এক্ষেত্রে তৃতীয় পক্ষ কিংবা কেউ যেন আর্থিক লেনদেন করতে না পারে এ বিষয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সেবা প্রত্যাশী জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিন পার্বত্য জেলার বিভিন্ন উপজেলায় দুর্গম এলাকার জনমানুষের চাহিদার ভিত্তিতে রাস্তা, ব্রীজ, কালভার্ট প্রভৃতি গ্রহণসহ উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড দৃশ্যমান হওয়ায় ভূয়সী প্রশংসা করেন। এছাড়া অংশগ্রহণকারীরা পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের মাননীয় চেয়াম্যান এর বরাবর রাস্তা, কালভার্ট, ব্রীজ, সমাজকল্যাণধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণের জন্য আবেদন জানান।

এসময় পার্বত্য চ্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের সদস্য বাস্তবায়ন মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ (উপসচিব), মংছেনলাইন রাখাইন, উপপরিচালক; কাইংওয়াই ম্রো, গবেষণা কর্মকর্তাসহ বোর্ডের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।