এ যেন উৎসবের রাঙামাটি

594

press-pic-19-11-16-4
॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

প্রধানমন্ত্রী কথা বলবেন রাঙামাটিবাসীর সাথে, শনিবার সাধারণ মানুষের মাঝে এ উচ্ছাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। শহরের সকল প্রান্ত থেকে সব শ্রেণি পেশার মানুষ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় ভিডিও কনফারেন্সে যোগ দিতে আসনে। মানুষের আগ্রহ দেখে মনে হচ্ছিল, যেন উৎসব চলছে রাঙামাটি শহর জুড়ে।

শনিবার সকাল থেকেই মানুষের মাঝে ভিডিও কনফারেন্সকে ঘিরে ব্যস্ততা-ত্রস্ততা লক্ষ করা গেছে। মুল কনফারেন্স তো বটেই জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় সম্প্রচারিত হওয়া ৫টি স্থানও যেন এদিন ছিল উৎসবস্থল। সকাল থেকেই শহরে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এই ভিডিও কনফারেন্স। প্রধানমন্ত্রী কি বলবেন? কি সুখবর আছে তাঁর বলার মাঝে? সবার মধ্যে অদ্ভুত এক উৎকন্ঠা, উদ্বেগ কাজ করছিল।

সকাল ১০টা থেকেই অনুষ্ঠানস্থলের বাইরে নিস্তব্ধ হয়ে যায় পুরো শহর। একঘন্টা আগেই অনুষ্ঠানস্থলে হাজির আপামর জনসাধারণ। নির্ধারিত পাঁচটি স্থানও পরিপূর্ণ লোকে লোকারণ্যে। মনে হয়নি এ কনফারেন্স উপলক্ষ্যে স্কুল-কলেজ বন্ধ ছিল। স্কুল-কলেজ ইউনিফর্ম পরিহিত সবাই এসেছেন অনুষ্ঠানস্থল। বাদ ছিল না সরকারি কমকর্তা-কর্মচারি, বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষও।

এসেছেন চায়ের দোকানের বয়, শ্রমিক, প্রতিবন্ধি। এ এক অন্যরকম উৎসব। ভ্রাতৃত্ববোধ, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মেলবন্ধনও। উৎসবে উদ্বেলিত রাঙামাটির মানুষ প্রধানমন্ত্রীর কাছে এমন উৎসব প্রতিনিয়তই কামনা করে যাবে। আশা করি তিনি হতাশ করবেন না।