এ সপ্তাহের বিশ্ব পরিক্রমা

305

॥ ডেস্কা রিপোর্ট ॥
করোনা পরিস্থিতিঃ বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় তান্ডব ইতোমধ্যেই বিভিন্ন দেশে শুরু হয়ে গেছে। শুক্রবার একদিনেই নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬ লাখ ৫৯ হাজারের বেশি মানুষ। এছাড়া একই সময়ে নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ১১ হাজার ৮৫ জনের। এ নিয়ে বিশ্বজুড়ে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৫ কোটি ৭৯ লাখ ২ হাজার ছাড়িয়েছে। আর করোনায় আক্রান্ত হয়ে বিশ্বে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩ লাখ ৭৭ হাজারে। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রে ২ হাজার ১৫ জন কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মে মে মাসের পর দেশটিতে করোনায় একদিনে আর এতো মানুষের মৃত্যু হয়নি।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ড ওমিটারের তথ্যানুযায়ী, শনিবার (২১ নভেম্বর) সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ কোটি ৭৯ লাখ ২ হাজার ১৮৭ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১৩ লাখ ৭৭ হাজার ৫২৭ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ৪ কোটি ১ লাখ ২ হাজার ২৮৪ জন।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ২ লাখ ৬০ হাজার ২৮৩ জন। বিশ্বে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যাও এই দেশটিতে। বিশ্বের ক্ষমতাধর এ দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ কোটি ২২ লাখ ৭৪ হাজার ৭২৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ভারত। এ দেশে সংক্রমিত হয়েছেন ৯০ লাখ ৫০ হাজার ৬১৩ জন এবং মারা গেছে ১ লাখ ৩২ হাজার ৭৬৪ জন। এ ছাড়া আক্রান্তে তৃতীয় অবস্থানে ব্রাজিল এবং চতুর্থ অবস্থানে ফ্রান্সে রয়েছে।

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনের জাতিসংঘে প্রস্তাব গৃহীতঃ
বাংলাদেশের উপর জগদ্দল পাথরের মতো চেপে বসা রোহিঙ্গা সঙ্কটের জরুরি সমাধানের লক্ষ্যে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের তৃতীয় কমিটিতে প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে। তবে এই প্রস্তাবে ভোট দেয়নি প্রতিবেশি দেশ ভারত। ‘মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক প্রস্তাাবটি গত ১৮ নভেম্বর চতুর্থবারের মতো বিপুল ভোটে গৃহীত হয়।

প্রস্তাবটিতে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়েছে ১০৪ দেশ। এর মধ্যে রেজুলেশনের পক্ষে ভোট দেয় ১৩২ দেশ, আর বিপক্ষে ভোট দিয়েছে ৯ দেশ। ভোট দানে বিরত ছিল ৩১ দেশ। প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেওয়া দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়া, চীন, ভারত ছাড়াও সার্কভুক্ত দেশ নেপাল ও শ্রীলঙ্কা রয়েছে।

জাতিসংঘ প্রস্তাবটিকে ধারাবাহিকভাবে সমর্থন জানানোর জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। এই প্রস্তাবে রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবাসন নিশ্চিত করাসহ বেশ কিছু বিষয় উল্লেখ রয়েছে।

বাংলাদেশে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে আবারও রেকর্ডঃ
করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বিশ্ব অর্থনীতি যখন বিপর্যস্ত সেই সময়ে বাংলাদেশের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের পরিমাণ আবারও নতুন রেকর্ড গড়েছে। করোনার উদ্ভুত পরিস্থিতির মধ্যেও বাংলাদেশ ব্যাংকে থাকা বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ এবার ৪১ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক পেরিয়ে গেছে।

সর্বশেষ প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভে রয়েছে ৪১.২০ বিলিয়ন ডলার। যা অতীতের সব রেকর্ড অতিক্রম করেছে। এই রিজার্ভ পাকিস্তানের চেয়ে তিন গুণ বেশি। রিজার্ভের এই সুখবরে প্রবাসী কর্মীদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত ১ সেপ্টেম্বর দেশের রিজার্ভ প্রথমবারের মতো ৩৯ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে। সেপ্টেম্বরের শুরুতে বেড়ে হয় ৩৯.৫০ বিলিয়ন ডলার, ২০ সেপ্টেম্বর তা বেড়ে ৩৯ বিলিয়ন ডলারের উপরে ওঠে। সর্বশেষ ৮ অক্টোবর তা আরও বেড়ে ৪০ বিলিয়ন ডলার অতিক্রম করে রিজার্ভ নতুন উচ্চতায় উঠে যায়। মাস না পেরুতেই তা ৪১ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেল।

৭৮ বছরে পা রাখলেন জো বাইডেনঃ
৭৮ বছরে পা রাখলেন নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যিনি বিশ্বের সবচেয়ে ক্ষমতাধর দেশ মার্কিন ইতিহাসে প্রবীণতম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পেতে চলছেন। শুক্রবার জীবনের ৭৭তম বসন্ত পেরিয়ে আসেন তিনি। দায়িত্ব গ্রহণের প্রস্তুতি নিয়ে প্রচন্ড ব্যস্ততার মাঝেই একফাকে ছোট করে জন্মদিনও পালন করেন তিনি।

জন্মদিনের ঠিক ২ মাসের মাথায় তিনি হোয়াইট হাউসে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন। এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে ৬০ লাখেরও বেশি ভোট পেয়ে হতে চলছেন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট।

এর মধ্যেই তিনি প্রমাণ করেছেন বয়স কেবল সংখ্যা মাত্র। বাইডেনের ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. কেভিন ও কনোর একটি মেডিকেল রিপোর্টে বাইডেনকে ‘সুস্বাস্থ্যের অধিকারী, সবল ও প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব¡ সফলভাবে পালন করতে সক্ষম বলে উল্লেখ করেছেন। নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তার ভক্তরা।

অবশেষে করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদনে যাচ্ছেঃ
অবশেষে কভিড-১৯ ভ্যাকসিন উৎপাদনে যাচ্ছে। করোনা ভ্যাকসিন উৎপাদনের লক্ষ্যে অনুমোদনের আবেদন জানিয়েছে মার্কিন ঔষুধ প্রস্ততকারক প্রতিষ্ঠান ফাইজার এবং জার্মান প্রাণ-প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক। তারা ইতোমধ্যেই দাবি করেছে চুড়ান্ত ট্রায়ালে তাদের সফলতা ৯৫ শতাংশ। নিজেদের উদ্ভাবিত কভিড-১৯ ভ্যাকসিন জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদনের জন্য শুক্রবার আবেদন করে তারা।

সাধারণত যুক্তরাষ্ট্রে একটি ভ্যাকসিন চূড়ান্ত অনুমোদন পেতে আট বছর লেগে যায়। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জরুরিভিত্তিতে সম্ভাব্য ভ্যাকসিন ও ওষুধের অনুমোদন দেয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

আশা করা হচ্ছে, ডিসেম্বরের প্রথমার্ধেই ভ্যাকসিনের অনুমোদন মিলবে। সেটি হলে এটিই হবে অনুমোদন প্রাপ্ত প্রথম কভিড-১৯ ভ্যাকসিন। যুক্তরাষ্ট্র সরকার এরই মধ্যে ৪ কোটি ডোজের আগাম ক্রয়াদেশ দিয়ে রেখেছে। জানা গেছে, এ বছরের শেষ নাগাদ অন্তত ১ কোটি ডোজ পাওয়া যাবে।