কর অঞ্চল- ৯ এর ‘নববর্ষ-হালখাতা’ উৎসব

385

স্টাফ রিপোর্ট-১৫ এপ্রিল ২০১৭, দৈনিক রাঙামাটি:  করদাতাদের বকেয়া কর পরিশোধে উদ্বুদ্ধ করতে এ বছর প্রথমবারের মতো হালখাতা উৎসব করছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। গত ১৩ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার এনবিআরের কর অঞ্চল-৯ এই হালখাতায় অংশ নিয়ে উত্তরার বড় বড় শিল্পপতি, ব্যাংক, বীমাসহ সংশ্লিষ্ট খাতের করদাতারা কর প্রদান করেছেন।

সারাদিন উৎসবের আমেজে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৭টা পর্যন্ত কর অঞ্চল- ৯ এর কর কমিশনার আতিয়ান নাহার তার সহকর্মী কর্মকর্তা-কর্মচারিদের নিয়ে ‘রাজস্ব হালখাতা’ করের পেঅর্ডার গ্রহন করেন। এসময় বাঙালি ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির সঙ্গে মিল রেখে রাজস্বসংস্কৃতির আদলে অফিস ভবনে ব্যানার টানিয়ে, গেট নির্মাণ করে এবং বাঙালিয়ানার নানান পসড়ায় অফিস সজ্জিত করা হয়। এছাড়া করদাতাদের দেশে তৈরি মিষ্টি, মোয়া-মুড়কি, মুড়কি, বাতাসা ও স্থানীয় সুস্বাদু খাবার মাধ্যমে আপ্যায়ন করা হয়। অফিসে আপ্যায়ন করেই শেষ নয়, করদাতাদের পরিবারের সদস্যদের জন্যও নকশি করা মাটির হাড়ি ভরে মিষ্টি, মোয়া-মুড়কি, মুড়কি, বাতাসা ও স্থানীয় সুস্বাদু খাবার, বাংলার ঐতিহ্যবাহি বাদ্য যন্ত্র  ডুগডুগি ও বাশের বাশি।

দুপুরের পর নেতা-কর্মিদের নিয়ে সাড়ম্বরে আসেন এদিনের প্রধান অতিথি স্থানীয় সাংসদ সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী এডভোকেট সাহারা খাতুন। কর অঞ্চল- ৯ এর সম্মেলন কক্ষে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিনি কয়েকজন করদাতাদের কাছ থেকে চেক গ্রহণ করেন।
এসময় তিনি বলেন, বঙ্গাবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চ্যালেন্স গ্রহণ করে পদ্মা সেতু নির্মন করছেন। সেটি হচ্ছে আপনাদের দেয়া করের টাকায়। তাই দেশের উন্নয়নের স্বার্থে নিজের ইচ্ছায় কর দিতে হবে। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কর অঞ্চল- ৯ এর কর কমিশনার আতিয়ান নাহার।
সন্ধ্যায় তাদের কমকার্ন্ড পরিদর্শণ করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য মীর মোস্তাক আলী। তিনিও কয়েকজন করদাতাদের কাছ থেকে পেঅর্ডার গ্রহণ করেন।

বাংলাদেশের রাজস্ব ব্যবস্থাপনার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সারাদেশে রাজস্ব হালখাতার আয়োজন করা হয়।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরো প্রধান।