কলেজ গেইট এলাকায় ঘরের ভাড়াটিয়া মালিক সেজে বসেছেন///

708

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

জায়গা সংক্রান্ত ঘটনায় আমানতবাগ এলাকার নিবাসী নারভীন আক্তার ও সহযোগী নুসরাত জাহান কর্তৃক সংবাদ সম্মেলনের বিরুদ্ধে পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলন করেছে গৃহবধূ নুসরাত হামিদা ও ব্যবসায়ী আব্দুল হামিদ। বুধবার (০১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে শহরের কলেজ গেইট এলাকার একটি কটেজে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে আমানবাগ এলাকার বাসিন্দা নুসরাত হামিদা বলেন, আমার স্বামী দীর্ঘদিন যাবত প্রবাসে সৌদি আরবে কর্মরত আছেন। স্বামী টাকায় আমার স্বামীর ফুফাতো ভাই মোঃ.আব্দুল হামিদকে দিয়ে আমানতবাগ এলাকায় মো. বাদল মিয়া থেকে ২০১১ সালে আড়াই শতক জায়গা কিনে কাঁচা টিনসেড ঘর নির্মাণ করে ভাড়া দেয়। পরবর্তী সময়ে ২০১৩ সালে আমার স্বামী বিদেশ থেকে আসলে হামিদ আমার স্বামীর নামে জায়গাটি হলফনামার মাধ্যমে হস্তান্তর করেন। এরপরপ আমার নিকট আত্মীয় হামিদ কেয়ারটেকার হিসেবে বাড়ির ভাড়া ব্যাপারে সকল দায়িত্ব পালন করে।

২০১৮ সালে ঘর খালি হলে মোঃ হামিদ নারভিন আক্তারকে মাসিক পাঁচহাজার টাকায় ভাড়া দেয়। ওই নারী দীর্ঘদিন ঠিক ভাবে ভাড়া পরিশোধ কলেও গত পাঁচ মাসের ঘর ভাড়া বকেয়া হলে হামিদ বার বার ঘর ভাড়া চাইলে সে অজুহাত দেখায়। এরপর ঘর ভাড়া চাওয়া হলে হামিদকে জায়গা ক্রয় করে নিয়েছে বলে ওই নারী জবাব দেন। এ ঘটনা জানার পর আমি নিজে গেলেও নারভিন আক্তার আমাকে একই কথা শুনায় এবং অশ্রাব্য ভাষা গালাগাল করে। এ ঘটনায় কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ জমা দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমি ওই নারী থেকে আমার বসত, জায়গা ফিরে পেতে চাই। এইজন্য প্রশাসনসহ সকলের কাছে সহযোগিতা কামনা করছি। এসময় গৃহবধূ নুসরাত হামিদা ছাড়াও, তার আত্মীয় মো. আব্দুল হামিদ, তার ছোট ভাই মো, ফোরকান এবং কলেজগেইট ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. মনির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।