কাউখালীর শামুকছড়িতে কৃষকের ধানক্ষেতে হিংসার আগুন

635

 

dr Kau 1

কাউখালী প্রতিনিধি , ১৯ জুলাই ২০১৬ : কাউখালী উপজেলার প্রত্যন্ত এক গ্রামের নাম শামুকছড়ি। যেখানে রয়েছে শুধুমাত্র মারমা সম্প্রদায়ের বসবাস। কে জানতো এই গ্রামেরই বাসিন্দা রেচি মারমা সুমনের ধানক্ষেতের বীজতলা প্রতিহিংসার আগুনে কে বা কারা জ্বালিয়ে শেষ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। জানা যায়, কাউখালী উপজেলার ৯৮ নং কচুখালী মৌজার শামুকছড়ি গ্রামের বাসিন্দা রেচি মারমা সুমন ৮০ নং খতিযানের অন্দরে ১৯৩৪, ১৮৭৭, ১৮২৯ দাগের ৭০ শতক জমি আপন বড় ভাই চাইথোয়াই অং মারমা পিতা মৃত, ক্যাথোয়াই প্রু মারমা হতে ক্রয় করে। ৯ জুলাই ভোর রাত্রে কে বা কারা তার সেই জমিতে (ধানের বীজ তলা) বিষাক্ত কিটনাশক ছিটিয়ে দিয়ে সম্পুর্ন ধান বীজ ধ্বংস করে দেয়।

এ ব্যাপারে কৃষক রেচি মারমা বাদি হয়ে গত ১১ জুলাই কাউখালী থানায় অজ্ঞাত নামে বিবাদী করে একটি সাধারনণ ডায়েরী করেন। কাউখালী থানার সাধারণ ডায়েরী নং ৩২১,১১.০৭.১৬। সরেজমিন পরিদর্শনকালে শামুকছড়ির বাসিন্দা অংশি প্রু মারমা, চাইলাউ মারমা, পাইচি মারমা, থুইচানু মারমা (কার্বারী) এই প্রতিনিধিকে বলেন আমরা শামুকছড়ি গ্রামের বাসিন্দারা খুবই শান্তিতে বসবাস করে আসছিলাম। কিন্তু গত কয়েক দিন কে বা কারা রাতের আধারে রেচি মারমা সুমনের ধান ক্ষেত (বীজতলা) বিষাক্ত কিটনাশক ছিটিয়ে দিয়ে তার ক্ষেত নষ্ট করে দেয় যা খুবই দঃখজনক। কৃষক বলেন আমি এই অবিচারের সুষ্ঠু বিচার চাই।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান
ঢাকা ব্যুরো অফিস, দৈনিক রাঙামাটি