কাউখালী ও বরকলে যথাযোগ্য মর্যাদায় একুশ উদযাপন

231

p....4
স্টাফ রিপোর্টার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : কাউখালী উপজেলায় রোববার রাত ১২টা ১ মিনিটে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন ও স্থানীয় প্রেস ক্লাবের পক্ষ হতে কাউখালী উপজেলা কেন্দ্রিয় শহিদ মিনারে পুস্প মাল্য অর্পৃন করা হয়।

প্রথমে কাউখালী উপজেলা পরিষদের পক্ষে এবং এর পরে উপজেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাউখালী উপজেলা শাখার এবং অংগ সংগঠনের পক্ষে, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি),জাতীয় পার্টি, কাউখালী উপজেলা প্রেস ক্লাব এবং কাউখালী উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ হতে কাউখালী কেন্দ্রিয় শহিদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন করে শহিদদের প্রতি শ্রদ্বা জানানো হয়। পরে কাউখালী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে কাউখালী উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃ ভাষা দিবস-২০১৬ খিঃ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কাউখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিসেস আফিয়া আখতারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন কাউখালী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন কাউখালী উপজেলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান মিস এ্যানি চাকমা। ভাইস-চেয়ারম্যান মংসুইউ চৌধুরী।

উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ সফিকুল ইসলাম। কাউখালী থানার অফিসার ইনচার্য মোঃ আব্দুল করিম, উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসার মোঃ মইনুল ইসলাম প্রমূখ। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বি আর ডি বি’র অফিসার মোঃ ওয়ালী উল্লাহ, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পরিনয় চাকমা, কাউখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল কাদের, উপজেলা খাদ্য অফিসার মিসেস রিপু চাকমা, উপজেলা প্রেস- ক্লাব সভাপতি মোঃ আরিফুল হক মাহবুব, সহ-সভাপতি মোঃ ওমর ফারুক, মিডিয়া কর্মী মোঃ জয়নাল আবেদীন, মোঃ মেহেদী হাসান সোহাগ।আলোচনা সভাশেষে সাংস্কৃতিক ও চিত্রংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রধান অতিথি কর্তৃক সাংস্কৃতিক ও চিত্রংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরুস্কার প্রদান করা হয়।

বরকলে যথাযোগ্য মর্যাদায়
মাতৃভাষা দিবস পালন :

বরকল প্রতিনিধি- ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী, আমি কি ভুলিতে পারি’  কালজয়ী গানের মধ্যে দিয়ে রোববার বরকল উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে শহিদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস। দিবসের শুরুতেই রাত বারোটা এক মিনিটে উপজেলার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশবাহিনী, মুক্তিযুদ্ধসংসদসহ বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রভাত ফেরী করা হয়। প্রভাত ফেরীটি উপজেলা পরিষদের মাঠ প্রাঙ্গন থেকে শুরু করে বাজার এলাকা ঘুরে এসে আবার পরিষদের  মাঠে এসে শেষ হলে শহিদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহাবুব আলম ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শ্রীমতি মনি চাকমা বক্তব্য রাখেন।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান