কাপ্তাইয়ের চিৎমরম সাংগ্রাই উৎসবে হাজারো মানুষের ঢল

283

॥ অর্ণব মল্লিক ॥

কাপ্তাইয়ের চিৎমরমে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী বৌদ্ধ বিহার মাঠে অনুষ্ঠিত হলো মারমা সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় বর্ষবরণ উৎসব সাংগ্রাই। যেটিকে বাংলা ভাষায় জলকেলী উৎসব বলা হয়ে থাকে। শুক্রবার এই সাংগ্রাই উৎসব উপলক্ষে চিৎমরম বৌদ্ধ বিহার মাঠে জাতি, ধর্ম, বর্ণ, নির্বিশেষে হাজারো মানুষের সমাগম ঘটে।

সাধারণত নববর্ষকে বরণ এবং পুরানো বর্ষকে বিদায় জানাতে পার্বত্য চট্টগ্রামে বসবাসরত মারমা সম্প্রদায় সাংগ্রাই জল উৎসব উদযাপন করে থাকে। মারমা যুবক যুবতীরা একে অপরের উপর জল ছিটিয়ে পুরানো বছরের দুঃখ, গ্লানি, বেদনাকে ভূলে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চায়।

সাংগ্রাই জল উৎসব উপলক্ষে বিহার সংলগ্ন মাঠে শুক্রবার সকাল ১০ টায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কাপ্তাই ৪১ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্নেল সাব্বির আহমেদ।

সাংগ্রাই জল উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও চিৎমরম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ওয়েশ্লিমং চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন। মাসাং মারমা ও ইসাইনু মারমার সঞ্চালনায় এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য অংসুই ছাইন চৌধুরী, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মফিজুল হক, কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান, রাঙামাটি জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য প্রকৌশলী থোয়াইচিং মং মারমা, চন্দ্রঘোনা থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী, ৩২৩নং চিৎমরম মৌজার হেডম্যান ক্যওসিং মং। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাংগ্রাই জল উৎসব- উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ও চিৎমরম ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ক্যপ্রু চৌধুরী। এদিকে চিৎমরমে এই সাংগ্রাই উৎসবকে ঘিরে এলাকায় বসে বৈশাখী মেলা ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।