কাপ্তাইয়ের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আমিন উদ্দিন

191

॥ কাপ্তাই প্রতিনিধি ॥

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার সাংস্কৃতিক জগতের অন্যতম এক ব্যক্তির নাম মো. আমিন উদ্দিন। ঊনবিংশ শতাব্দিতে কাপ্তাইয়ের পিছিয়ে থাকা সাংস্কৃতি মূলত তার হাত ধরেই উঠে এসেছিল। সাংস্কৃতির বিকাশে কাপ্তাই ছাড়াও রাঙামাটি, চট্টগ্রামসহ তিন পার্বত্য অঞ্চলেও রয়েছে তার অনন্য ভূমিকা।

রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার কোর্ট বিল্ডিং এলাকার মো. আইয়ুবের চার ছেলে ও পাচঁ মেয়ের মধ্যে আমিন তৃতীয়। মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও সাংস্কৃতিকে তিনি সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে আলোচিত হয়ে কাপ্তাইয়ের বুকে প্রতিষ্ঠা করেছেন সাস্কৃতিক জগত। যার অভিনয়ে মুগ্ধ হয়ে তার প্রেমেও পড়েছে হাজার হাজার দর্শক। সাংস্কৃতিক শিক্ষক হিসেবেও রয়েছে তার অনেক খ্যাতি। স্কুল-কলেজ

পড়–য়াকালীন সময়ে তিনি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ‘আকাশ আমরা কাপ্তাইয়ের সন্তান’ ও ‘বর্ণক’ নামক দুইটি খ্যাতনামা সাংস্কৃতিক সামাজিক সংগঠনের। যার সদস্যরা আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিনয়ের মাধ্যমে

সর্বসাধারণের পরিচিত মূখ হিসেবে বিবেচিত। তিনি বহুবার জেলা উপজেলা বিভাগসহ বিভিন্নস্থানেও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। তার হাত ধরে অভিনয়ের মাধ্যমে  প্রধানমন্ত্রী হতে স্বর্ণ পদক গ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছে কাপ্তাইয়ের সন্তান নিসাত রহমান নিসা।

জাতীয়, বিভাগীয়, জেলা কিংবা উপজেলায়ও সম্মাননা পেয়েছে প্রিয়া, মোহনা, তোকির, নিপা, রাসেল, রিয়াজ মাহমুদসহ অজ্ঞাত অনেক শিক্ষার্থী যার নামও আজ তার অগচরে রয়ে গিয়েছে। তিনি বর্তমানে দুবাইয়ের আজমান প্রাইভেট স্কুল এন্ড কলেজের সাংস্কৃতিক বিষয়ক শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছে।