কাপ্তাই হ্রদে জাঁক বিরোধি অভিযানে নিষিদ্ধ জালসহ আটক ৫

448

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

কাপ্তাই হ্রদে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে মাছ ধরার অপরাধে পাঁচজনকে আটক করেছে বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি) রাঙামাটি।

এসময় একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা, দুইটি কাঠের নৌকা, ২০০ হাত বেড জাল  এবং অক্স্রিজেন সিলিন্ডারসহ ডাইভিং সরঞ্জমাদি উদ্ধার করা হয়। বুধবার (০১ মার্চ) দুপুর ১২টার দিকে জেলা সদরের কাপ্তাই হ্রদের কাইন্দার মুখ এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করে।

বিএফডিসি’র ব্যবস্থাপক কমান্ডার (নৌ বাহিনী) মো. আসাদুজ্জামান জানান, জেলা সদরের কাপ্তাই হ্রদের কাইন্দার মুখ এলাকায় বিশেষ ফাঁদ (জাঁক) দিয়ে মাছ ধরার সময় অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

এসময় একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা যার আনুমানিক মূল্য ৬০ হাজার টাকা, দুইটি কাঠের নৌকা যার আনুমানিক মূল্য ১৫ হাজার টাকা, ২০০ হাত বেড জাল যার আনুমানিক মূল্য ৩৫ হাজার টাকা এবং অক্সিজেন ডাইভিং যন্ত্রপাতি উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি বলেন, উদ্ধারকৃত সরঞ্জমাদি এবং অপরাধীদের জেলা প্রশাসনের ভ্র্যাম্যমান আদালতে  সোপর্দ করা হয়।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট (এনডিসি) মো. ফারুক সুফিয়ান জানান, কাপ্তাই হ্রদ থেকে উদ্ধারকতৃ মাছ শিকারের অবৈধ সরঞ্জামাদি এবং আটক ব্যাক্তিদের আদালতে হস্তান্তর করেছে বিএফডিসি।

তিনি বলেন, অপরাধীদের ঘটনাস্থলে হাতেনাতে ধরতে না পারায় ভ্যা¤্রমান আদালতের নিয়মানুযায়ী আটককৃত ব্যক্তিদের খালাস  দেয়া হয়েছে। তবে  উদ্ধারকৃত অবৈধ বেড জাল পুড়িয়ে ফেলার নির্দেশ এবং উদ্ধারকৃত অন্যান্য সরঞ্জমাদি বৃহস্পতিবার (০২ মার্চ) উন্মুক্ত নিলামে বিক্রি করা হবে বলে তিনি জানান।

এ অভিযানে অংশগ্রহণ করে, নৌ পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) রহুল আমীন, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কাজল বিশ্বাস, সহকারী উপ- পরিদর্শক (এএসআই) সত্যব্রত চাকমাসহ বিএফডিস’র কর্তৃপক্ষ।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএফডিসি’র ডেপুটি ম্যানেজার জাহিদুল ইসলাম,  জেলা প্রশাসনের পেশকার নজরুল ইসলাম ও সহকারী পেশকার অয়ন বড়–য়া।