খাগড়াছড়িতে হামলার প্রতিবাদে ঢাবিতে ছাত্র ঐক্যের বিক্ষোভ : পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাশাসন প্রত্যাহারের দাবি

304

Dhaka, 30.11.2015  dr

ঢাকা ব্যুরো অফিস, ৩০ নভেম্বর ২০১৫, দৈনিক রাঙামাটি (প্রেস বিজ্ঞপ্তি) : খাগড়াছড়িতে জাতিসংঘ ঘোষিত ‘ফিলিস্তিন সংহতি দিবসে’ পার্বত্য চট্টগ্রামের ৮ গণসংগঠনের সমাবেশে সেনা-পুলিশি হামলায় ১৪জন আহত ও হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নিরূপা চাকমাসহ ২জনকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে সা¤্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্য। সমাবেশ থেকে গ্রেফতারকৃতদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি এবং হামলাকারী সেনা-পুলিশ সদস্যদের বিচারের দাবি জানানো হয়েছে। এছাড়া সমাবেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অগণতান্ত্রিক ১১ নির্দেশনা বাতিল এবং পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনা শাসন প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে।

আজ সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টায় সময় মধুর কেন্টিন থেকে মিছিল বের হয়ে কলা ভবন প্রদক্ষিণ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় লাইব্রেরীর সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্যের সমন্বয়ক এম এম পারভেজ লেলিনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পিসিপি’র কেন্দ্রীয় সভাপতি সিমন চাকমা, বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের সহ আহ্বায়ক আতিফ অনিক এবং ছাত্র গণমঞ্চের সভাপতি সাঈদ বিলাস। সমাবেশ পরিচালনা করেন সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্যের নেতা ও পিসিপির সাধারণ সম্পাদক বিপুল চাকমা।
সমাবেশে পিসিপি সভাপতি সিমন চাকমা বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকার অগণতান্ত্রিক ১১ নির্দেশনা জারি করেছে, ফলে সেনাবাহিনী সেই নির্দেশনায় আরো বলীয়ান হয়ে অব্যাহতভাবে দমন-পীড়নের মহোৎসবে মেতে উঠেছে। ফিলিস্তিন সংহতি সমাবেশে হামলা ও গ্রেফতার তারই ধারাবাহিকতা।

বিপ্লবী ছাত্র যুব আন্দোলনের সহ আহ্বায়ক আতিফ অনিক বলেন, সরকারের ফ্যাসিবাদী চরিত্র ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। সারা দেশে সরকার জনগণের ওপর দমন-পীড়ন চালাচ্ছে। পাহাড় সমতলে আন্দোলনকারীদের ওপর আরো বেশি নির্মম দমন-পীড়ন চালাচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।

ছাত্র গণমঞ্চের সভাপতি সাঈদ বিলাস বলেন, উগ্র ফ্যাসিবাদের মধ্যে পড়ে পাহাড়িরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, তাদের ওপর সেনা সেটলার লেলিয়ে দিয়ে ভূমি বেদখল ও নির্মম দমন-পীড়ন চালানো হচ্ছে।

সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্যের সমন্বয়ক এম এম পারভেজ লেলিন বলেন, সেনা-প্রশাসন গতকাল ন্যাক্কারজনক হামলা-গ্রেফতার করেছে। তিনি বলেন, সরকার মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করে দমবন্ধ হওয়ার মত পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। অনির্বাচিত সরকারের প্রতি জনগণের ম্যান্ডেট নেই বলে তারা এ কাজ করে চলেছে। তিনি আরো বলেন, জনগণের ওপর নিপীড়ন বন্ধ না করলে ছাত্ররা দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

সম্পাদনা, পোস্ট- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান