চমক দেখালেন নৌকার তরুণ মাঝি রোমান> রাঙামাটির ১০উপজেলায় যারা বিজয়ী হলেন

326

॥ মঈন উদ্দীন বাপ্পী ॥

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে রাঙামাটি জেলার ১০ উপজেলা পরিষদের নির্বাচনটি বিশাল এক ঘটনার জন্ম দিয়ে শেষ হলেও এই নির্বাচন ঘটনাবহুল ছিল না। বাঘাইছড়ির একটি ঘটনা বাদ দিলে নির্বাচন বেশ নির্বিঘœ ও সুষ্ঠুভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। তবে একটি ঘটনাই একশ’ ঘটনার সমান। এ ঘটনা পাহাড়ের নির্বাচনে এক কলঙ্কজনক অধ্যায়ের জন্ম দিল। নির্বাচনে বেশির ভাগই নতুন মুখ হলেও রাঙামাটি সদর এবং কাউখালীতে দুই তরুণ চেয়ারম্যান এবার প্রথম দৌড়েই বিজয়ের মালা পরে চমক সৃষ্টি করেছেন। ১০ উপজেলার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান ৫জন, জেএসএস চারজন এবং এবং জেএসএস সংস্কার থেকে নির্বাচিত হয়েছেন। দশ উপজেলার ফলাফল নি¤œরূপঃ-

রাঙামাটি সদরে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী (নৌকা) তুরণ রাজনিতিক ও সমাজ সেবক শহিদুজ্জামান মহসিন রোমান। তিনি পেয়েছেন ২৫হাজার ৭১৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পিসিজেএসএস সমর্থিত ( আনারস) অরুণ কান্তি চাকমা পেয়েছেন ১৮হাজার ২৪ ভোট।

পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে দূর্গেশ্বর চাকমা (বই) ২২হাজার ৪৭ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অনুপম চাকমা (টিউবওয়েল) পেয়েছেন- ১৮হাজার ৭৩৪ভোট। আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নাসরিন আক্তার (কলস) ২১হাজার ৬২০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী রিতা চাকমা (প্রজাপতি) পেয়েছেন ২০হাজার ৫৮ ভোট।

কাউখালী উপজেলায় আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী সামশুদ্দোহা চৌধুরী পেয়েছেন ২৬হাজার ৬৮০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী পিসিজেএসএস সমর্থিত (আনারস) অর্জুন মণি চাকমা পেয়েছেন- ৭হাজার ৫০ ভোট।

পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে অংপ্রু মারমা (টিউবওয়েল) ১৬হাজার ৮৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়অ হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী মংসুউ মারমা (চাশমা) পেয়েছেন- ৯৯২ ভোট। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নিংবাউ মারমা (কলস) ২১হাজার ৫৭৯ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী কৃপা চাকমা এ্যানী (প্রজাপতি পেয়েছেন- ১২হাজার ১২৩ ভোট।

রাজস্থলী উপজেলায় আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী (নৌকা) উবাচ মারমা ৯হাজার ৭০ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী স্বতন্ত্র  শাক্য মিত্র তঞ্চঙ্গ্যা (আনারস)  পেয়েছেন- ২হাজার ৩৮৮ ভোট। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উচসিন মারমা ( প্রজাপতি) হাজার ২ ভোট পেয়ে বিজয় হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী রাজু আক্তার (কলস) পেয়েছেন- ৩হাজার ২৩৭ভোট।

জুরাছড়ি উপজেলায় পিসিজেএসএস সমর্থিত (আনারস) সুরেশ কুমার চাকমা ৭হাজার ৩৩৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী  আ’লীগ সমর্থিত  (নৌকা) রুপ কুমার চাকমা পেয়েছেন ২হাজার ২৫৫ ভোট। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে রিটন চাকমার কোন প্রতিদ্বন্ধী না থাকায় আগে তিনি বিজয়ী হয়েছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে  আলপনা চাকমা (হাঁস)  ৫হাজার ৩৬৪ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী (কলস) ৪হাজার ৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

বিলাইছড়ি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে  পিসিজেএসএস  সন্তু গ্রুপ সমর্থিত (আনারস ) বীরোত্তম তঞ্চঙ্গ্যা পেয়েছেন, ৬হাজার ৪৪৬ ভোট পেয়ে বিজয় হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী  (নৌকা ) জয়সেন তঞ্চঙ্গ্যা পেয়েছেন, ৪হাজার ৭৯৮ ভোট পেয়েছেন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে রবিন তঞ্চঙ্গ্যা (টিউবওয়েল) এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উৎফলা চাকমা (কলস) প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

কাপ্তাই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের সমর্থিত (নৌকা ) মফিজ আহম্মেদ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বিজয় হন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে (চশমা) নাছির উদ্দীন ৯হাজার ৭৮ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী (টিউবওয়েল) সুব্রত বিকাশ তঞ্চঙ্গ্যা ৪হাজার ৭৭৭ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উমৈচিং মারমা ৬হাজার ৩২৯ ভোট পেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ফারহানা আক্তার পেয়েছেন ৪হাজার ৩৫৬ ভোট পেয়েছেন। তবে ব্যালট পেপারগত সমস্যা হওয়ায় একটি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত থাকায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের পদটির রেজাল্ট প্রকাশ করা যায়নি।

বাঘাইছড়ি উপজেলায় পিসিজেএসএস সংস্কার এমএন লারমা গ্রুফ (ঘোড়া) প্রতীক নিয়ে সুদর্শন চাকমা ২৪হাজার ৮২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী পিসিজেএসএস সন্তু গ্রুফ সমর্থিত (আনারস) বড় ঋষী চাকমা পেয়েছেন- ১হাজার ২২ ভোট পেয়েছেন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৬হাজার ১৪  ভোট পেয়ে আব্দুল কাইয়ুম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৮হাজার ৭৭ ভোট পেয়ে সাগরিকা চাকমা বিজয়ী হয়েছেন।

লংগদু উপজেলায় আ’লীগের সমর্থিত প্রার্থী  (নৌকা) বারেক সরকার বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় বিজয় হয়েছেন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে মীর সিরাজুল ইসলাম (ঝন্টু) (নলকূপ) ৬হাজার ৩৬৭ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ইমাম হোসেন (বৈদ্যুত্বিক বাল্ব) ১৭৩০ ভোট পেয়েছেন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোয়ারা বেগম (ফুটবল) ৮হাজার ৬৩৫ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ফাতেমা জিন্নাহ (পদ্মফুল) ৬হাজার ২৫৫ভোট পেয়েছেন।

বরকল উপজেলায় পিসিজেএসএস সন্তু গ্রুপ সমর্থিত বিধান চাকমা চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। এছাড়া পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে শ্যাম রতন চাকমা এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সুচরিতা চাকমা বিজয়ী হয়েছেন।

নানিয়ারচর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে প্রগতি চাকমা, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. নুরুজ্জামান, এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আসমা বেগম বিজয়ী হয়।