ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে দীপংকর : সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, হত্যাকারীরা দেশ ও জাতির শত্রু

296

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

 

মঈন উদ্দীন বাপ্পী, ৪ জানুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার বলেছেন, হত্যা, ঘুম, চাঁদাবাজি করাকে রাজনীতি বলা যায় না। এই পদ্ধতিতে মানুষের কোনো মঙ্গল করা যায় না, বরং একে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বলে আখ্যায়িত করা হয়। তিনি পাহাড়ের একটি মহলের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, আপনারা ভুল পথে চলেছেন। বিপথ পরিহার করে সুপথে আসুন পাহাড়ের মানুষের কল্যাণ হবে। কারণ কাউকে হত্যা করে তার আদর্শ থেকে সরানো যায় না। তিনি বলেন, আমরা গণমানুষের জন্য রাজনীতি করি, তাদের অধিকার আদায়ে কাজ করি। আর যারা পাহাড়ে যারা চাদাঁবাজি করে, ঘুম, খুন, হত্যা করে তারা তা নিজেদের জন্যই করে। এরা জনগণের শত্র“ জাতির শত্র“। এসব সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের জন্যই পাহাড়ের উন্নয়ন বারে বারে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অথিতির বক্তব্য দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে দিনব্যপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিকেলে এক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে জেলা পরিষদের প্রাঙ্গন থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পৌরসভায় এসে শেষ হয়। র‌্যালী পরবর্তী সমাবেশে দীপংকর তালুকদার আরো বলেন, আমরা অস্ত্রের মুখে জাতীয় সংসদের আসন ও উপজেলার আসন হারিয়েছি কিন্তু সাধারণ জনগণের প্রত্যক্ষ সহযেগিতায় পৌর আসন জয় করেছি। এ বিজয় শুধু আওয়ামী লীগের বিজয় নয়, এ বিজয় সাধারণ জনতার বিজয়। আগামী দিনগুলোতেও জনগণকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সন্ত্রাস বিরোধী কার্যক্রম মোকাবেলার মাধ্যমে এ অঞ্চলকে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধশীল অঞ্চল হিসেবে গড়ে তোলার আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ- সভাপতি মাহবুবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতব্বর, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, নবনির্বাচিত মেয়র ও জেলা যুবলীগের সভাপতি আকবর হোসেন চৌধুরী। ছাত্রনেতাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ছ্ত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাইদুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুবেল চৌধুরী প্রমুখ।

ছাত্রলীগ কর্মীদের উদ্দেশ্যে দীপংকর তালুকদার বলেন, ছাত্রলীগ আর বাংলাদেশ এক ও অভিন্ন। স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয় ছাত্রলীগের ইতিহাস মিলে মিশে একাকার হয়ে আছে। ছাত্রলীগের নতুন ইতিহাস গড়ার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের ডিজিটাল বাংলাদেশ তথা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নে রাষ্ট্র, সমাজ, জনগণের উন্নয়নে কাজ করে যেতে হবে।

পোস্ট- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান