ছিনতাইকারী সিন্ডিকেটের কবলে পর্যটক : আটক এক

246

p......6-1

স্টাফ রিপোর্টার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : রাঙামাটিতে বেড়াতে আসা পর্যটককে ফুঁসলিয়ে শহরের একপ্রান্তে নিয়ে গিয়ে দামি মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তিন ছিনতাইকারীর একটি সিন্ডিকেট চক্র এই কর্ম করেছে বলে প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হয়েছে কোতয়ালী থানা পুলিশ। এই ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে অভিযান পরিচালনা করে একজনকে আটক করে তার কাছ থেকে একটি কমদামী নোকিয়া মোবাইল সেট উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও দামি মোবাইল সেটটি নিয়ে পলাতক রয়েছে সোহেল ও ফারুক নামে আরো দুই প্রতারক ছিনতাইকারী। আটকৃত যুবক শিপনের বাসা এসপি অফিস সংলগ্ন নীচের রাস্তা এলাকায়। সে জনৈক মিরাজের ছেলে বলে জানাগেছে।

ঘটনার শিকার পর্যটক কামরুল ইসলাম জানান, মাত্র একদিন আগে চাঁদপুর থেকে রাঙামাটিতে চাচার সাথে বেড়াতে এসেছেন তিনি। পেশায় কবিরাজ চাচা তাকে শহরের একটি আবাসিক হোটেলে রেখে পেশাগত কাজে লংগদু উপজেলাধীন মাইনীতে যান। রোববার বিকেল বেলায় রিজার্ভ বাজারের হোটেলটি থেকে বের হয়ে হাটতে হাটতে প্রেসক্লাব সম্মুখে রাঙামাটি পার্কের ভেতরে গিয়ে কিছুক্ষণ বসে থাকেন। এসময় শিপন নামে এক যুবক এসে তার সাথে সখ্যতা গড়ে তুলে কিছুক্ষণ কথা বলার পর পর্যটকের মোবাইল ফোনটি এক মিনিট কথা বলার জন্য চেয়ে বসেন। এসময় সাময়িক বন্ধুত্বের খাতিরে আগন্তুক যুবকটিকে নিজের ছোটো নোকিয়া মোবাইল ফোনটি দেন। এ সময় তার মোবাইল ফোনটি তাকে নাদিয়ে শিপন নিজের হাতে রেখে দিয়ে পুলিশ লাইনের দিকে হাটতে নিয়ে চলেন পর্যটক কামরুল ইসলামকে। পরে সেখানে গিয়ে আরো দুই যুবককে সাথে নিয়ে পর্যটক যুবকটির পকেটে থাকা এলজি পি-৮৮০ মডেলের দামী মোবাইল ফোনটিও কেড়ে নিয়ে তাকে সেখান থেকে চলে আসতে বাধ্য করে শিপন।

তারা স্থানীয় এক যুবকের সাহায্য চেয়ে নিজের মোবাইলফোন দুইটি উদ্ধার করে দেওয়ার অনুরোধ জানালে যুবকটি তাকে নিয়ে শহীদ মিনারের একটি দোকানে নিয়ে যায়, সেখানে শিপনকে সনাক্ত করেন পর্যটক কামরুল ইসলাম। পরে শিপনকে ধরে কোতয়ালী থানা পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ রশিদ জানিয়েছেন, আমরা খবর পেয়ে উক্ত যুবককে স্থানীয়দের কাছ থেকে উদ্ধার থানায় এনে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছ থেকে কমদামী নোকিয়া মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়। এছাড়া এই ঘটনায় তার সাথে থাকা অপর দুই সঙ্গীর নামও পুলিশকে জানায় শিপন। তাদের কাছে দামী এলজি মোবাইলটি রয়েছে বলে পুলিশকে জানিয়েছে আটককৃত ছিনতাইকারী শিপন। এই ঘটনায় পুলিশ বাকিদেরও আটকের চেষ্ঠা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ওসি।

জানাগেছে, শহরের পৌর পার্ক এলাকা প্রায় সময় বিকেল বেলায় এবং রাতের অন্ধকারে স্থানীয় কয়েকজন বখাটে যুবকদের একটি সিন্ডিকেট বেড়াতে আসা স্থানীয় পর্যটকদেরকে ধরে নিয়ে তাদের কাছ থেকে টাকা-পয়সাসহ মোবাইল ফোন-ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে মারধর করে নিজেরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়ভাবে জানাগেছে, এই ঘটনার সাথে শহরের রিজার্ভ বাজারের কয়েকজনসহ দুইনং পাথর ঘাটা এলাকা এবং এসপি অফিস সংলগ্ন নীচের রাস্তার সোহেল, ফারুক, সেলিম, শিপন, হুমায়ন, আকতার, শামীম, আবুসহ স্থানীয় আরো বেশ কয়েকজন বখাটে যুবকদের একটি সিন্ডিকেট চক্র প্রায় প্রতিদিনই স্থানীয়দের পাশাপাশি আগত পর্যটকদেরকে মারধর করে সঙ্গে থাকা জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিচ্ছে। স্থানীয়রা এসব বখাটেদের ভয়ে মুখ পর্যন্ত খুলতে চায় না।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান