জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসীদের চিরতরে দূর করা আমাদের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ

240

 

sp-pic-23-11-16-3

॥ মোঃ হান্নান ॥
চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোহাঃ শফিকুল ইসলাম বলেছেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীরা পাহাড়ের দূর্গম অঞ্চলগুলোকে তাদের জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থল বেছে নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে।

জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সারাদেশে যে জোরদার পুলিশি তৎপরতা চলছে তাতে সমতল জেলায় ঠিকতে না পেরে তারা পাহাড়ি এলাকাগুলো বেছে নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে আশ্রয় নিতে পারে জঙ্গলাকীর্ণ এলাকায়।এ বিষয়ে তিনি পাহাড়ে দায়িত্ব পালনকারী পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যদের কঠোর ও সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, যে কোনো মূল্যে এ দেশ থেকে আমরা সন্ত্রাসী ও জঙ্গীদের মুলৎপাটন করবো। তার অধিনস্ত পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশপ্রেম ও সততার সাথে দায়িত্ব পালন আমাদের শপথের অংশ এ বিষয়ে সবসময় সজাগ থাকবেন।

বুধবার রাঙামাটি পুলিশ সুপার কার্যালয়ে জেলার পুলিশ কর্মকর্তাদের সাথে আইনশৃঙ্খলা ও অপরাধ পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোহাঃ শফিকুল ইসলাম এ কথা বলেন।

পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান এর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মোঃ শহিদ উল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ সাফিউল সারোয়ার, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মাহবুব-উন-নবী, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কাপ্তাই সার্কেল) মোঃ আসলাম ইকবাল, ডিআইও (১) ইসমাইল হোসেন, অফিসার ইনচার্জ (জেলা গোয়েন্দা শাখা) পারভেজ আলীসহ জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

সভায় রাঙামাটি জেলার আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে জেলার বিভিন্ন ইউনিট ইনচার্জদের সাথে মতবিনিময়কালে ডিআইজি শফিকুল ইসলাম বলেন, অপরাধ করে আত্বগোপনের মোক্ষম স্থান হচ্ছে দুর্গম পাহাড়ি অঞ্চল, এই দৃষ্টিকোন থেকে অপরাধীরা সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে।

তিনি বলেন, পাহাড়ে যাতে জঙ্গি তৎপরতা ও সন্ত্রাসীরা কোনোভাবেই স্থান না পায় সে বিষয়ে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। এ ক্ষেত্রে অপরিচিত কাউকে শহরে রহস্যজনকভাবে চলাফেরা করলে তার সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নিতে হবে। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসীদের এদেশ থেকে চিরতরে দুর করা এখন আমাদের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ।

এর আগে সকালে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম জেলা সুখি নীলগঞ্জে পুলিশ লাইন্সে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন।