জঙ্গিবিরোধী অভিযান চলবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

404

dr  default_23356
ঢাকা, ২৬ জুলাই, দৈনিক রাঙামাটি : দেশজুড়ে জঙ্গিবিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সেই সাথে দেশবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে সাহসিকতার সাথে জঙ্গিবাদ মোকাবিলার আহ্বান জানান তিনি। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কল্যাণপুরে অভিযানে নিহত জঙ্গিদের সঙ্গে গুলশান ও শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার যোগসূত্র থাকতে পারে। নিহত জঙ্গিরা বড় ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছিল, সফল অভিযান চালিয়ে দক্ষতার প্রমাণ দিয়েছে পুলিশ।
তিনি আরও বলেন, তথ্যের ভিত্তিতেই ওই এলাকায় ব্লক রেইট চালানো হয়েছিল। ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া জঙ্গিদের ব্যবহৃত জিনিসপত্রের সঙ্গে গুলশান ও শোলাকিয়ায় উদ্ধার হওয়া জিনিসপত্রের মিল রয়েছে।

 

জঙ্গিরা উচ্চশিক্ষিত অভিজাত পরিবারের

operation_dr jpg

ঢাকা, ২৬ জুলাই : রাজধানীর কল্যাণপুরে জঙ্গি আস্তানায় ‘স্টর্ম-টোয়েন্টি সিক্স’ অভিযানে নিহতদের পোশাক, কথার ধরন, ব্যবহারের জিনিসপত্র সবকিছু দেখে মনে হয়েছে তারা সবাই উচ্চশিক্ষিত ও অভিজাত পরিবারের সদস্য। জঙ্গি আস্তানায় অভিযান নিয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে বিস্তারিত ব্রিফ করার সময় ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এ কথা বলেন। তিনি জানান, সোয়াট টিমের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এতে সহায়তা করেছে থানা পুলিশসহ ডিএমপির অন্য সদস্যরা। অভিযানে একজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, অভিযান শতভাগ সফল হয়েছে।
এর আগে কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের প্রধান মো. মনিরুল ইসলাম জানান, কল্যাণপুরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালানোর সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে লক্ষ্য করে মোট ১১টি গ্রেনেড ছোড়ে জঙ্গিরা। এরমধ্যে একটি গ্রেনেড অবিস্ফোরিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি জানান, আস্তানা থেকে ৪ থেকে ৫ কেজি বিস্ফোরক, ৪টি পিস্তল, ২১ রাউন্ড গুলি, ১টি তলোয়ার, ৩টি অটোমেটিক ছুরি, ৭টি ছোট ছুুুরি এবং বেশ কিছু আইএস লেখা কালো পতাকা পাওয়া গেছে।
আজ মঙ্গলবার সকাল ৭টায় ‘স্টর্ম-টোয়েন্টি সিক্স’ শীর্ষক এ অভিযান শেষ করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার শেখ মারুফ হাসান বলেন, ভোর ৫টা ৫১ মিনিটে কল্যাণপুরের জাহাজ বিল্ডিং নামের ওই বাড়িটিতে অভিযান শুরু করে সোয়াত, র্যাব, পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এসময় তাদের সাথে গোলাগুলিতে ৯ জঙ্গি নিহত হয়। এক জঙ্গি গুলিবিদ্ধসহ আটক করা হয়েছে আরও দু’জনকে।
প্রসঙ্গত গোপন তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে কল্যাণপুরের ৫ নম্বর রোডের জাহাজ বিল্ডিং নামের ৫ তলা বাড়িটিতে অভিযান শুরু করে পুলিশ। সে সময় বাড়ির ৩ তলা পর্যন্ত ওঠার পর ৫তলা থেকে ২ যুবক নেমে এসে গুলি চালালে এক পুলিশ কর্মকর্তা হাতে গুলিবিদ্ধ হন। একই সাথে তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেলও নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে হাসান নামে এক জঙ্গি আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাত প্রায় সাড়ে ৩টা পর্যন্ত পুলিশের সাথে জঙ্গিদের গুলি বিনিময় চলে। পরে পুরো এলাকাটি ঘিরে রেখে ভোরে সোয়াত, পুলিশ, র্যাব ও ডিবি যৌথভাবে অভিযান চালায়।
পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরো অফিস। সূত্র- অন্য মিডিয়া