জুরাছড়িতে রাঙামাটি জেলা পরিষদের সহয়তা বিতরণ ও কমিউনিটি সেন্টারের ভিত্তি স্থাপন

32

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটি জেলার দূর্গম জুরাছড়ি উপজেলার বনযোগীছড়া ইউনিয়নে কমিউনিটি সেন্টারের ভিত্তি প্রস্তুত স্থাপন, অসহায় পরিবারের মাঝে ঢেউটিন, সোলার, নগদ অর্থ প্রদান, মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকালে দূর্গম জুরাছড়ি উপজেলার স্নেহ কুমার স্মৃতি ক্লাব ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে বনযোগীছড়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।বনযোগীছড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সন্তোষ বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী।

সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জুরাছড়ি উপজেলা জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল জুলকিফলী আরমান বিখ্যাত, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য প্রবর্তক চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুরেশ কুমার চাকমা, জুরাছড়ি উপজেলার অফিসার ইনচার্জ শফিউল আজম, রাঙ্গামাটি জেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক উদয় শংকর চাকমা, বনযোগীছড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক উজ্জল কুমার চাকমা প্রমূখ।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী বলেন, আওয়ামীলীগ সরকারের আমলেই পার্বত্য এলাকার আনাচে কানাচে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রয়েছে। যেসব এলাকায় আগে রাস্তাঘাট, ব্রীজ ছিলো না সেখানে এখন রাস্তাঘাটসহ ব্রীজ নির্মানের কারণে দূর্গম এলাকার মানুষ উপকৃত হচ্ছে। যেখানে বিদ্যুৎ ছিলোনা সেখানে সোলার সিষ্টেমের মাধ্যমে বিদ্যুৎ পৌছে দেয়া হয়েছে। এর কারণ হলো আমাদের সুভাগ্য, দেশের সুভাগ্য, জাতির সুভাগ্য আমরা দেশ প্রেমিক প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। আর পার্বত্যাবাসীর সুভাগ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মতো আমরা একজন জননেত্রী পেয়েছি প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এই পার্বত্য এলাকার মানুষের জন্য অত্যন্ত আন্তরিক এবং আমাদের জননেতা দীপংকর তালুকদার এমপি’ও এই এলাকার জনগণের প্রতি এই এলাকার উন্নয়নের জন্য এই এলাকার শান্তির জন্য অত্যন্ত আন্তরিক। তিনি নিরিব ভাবে আমাদের প্রত্যেকের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। তবে আপনারা নিজেদেরকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে, নিজেদের প্রচেষ্টা চালাতে হবে আপনাদের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য। তা হলেই এলাকায় উন্নয়ন তরান্বিত হবে এবং এলাকায় শান্তি ফিরে আসবে।

আলোচনা সভা শেষে অসহায় ৩ পরিবারের মাঝে ঢেউটিন, ৫ পরিবারের মাঝে সোলার, ১৩ পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান, উপজেলার কলেজ-বিশ্ব বিদ্যালয়ে পড়ুয়া ৪ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে উপবৃত্তি প্রদান এবং চেয়ারম্যান পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩৯ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ ও ছাতা বিতরণ করা হয়।

এর আগে বনযোগীছড়া ইউনিয়নে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে ৪০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নতুন কমিউনিটি সেন্টারের ভিত্তি প্রস্থরের উদ্বোধন করেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরীসহ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।