জুরাছড়িতে সঙ্কটাপন্ন প্রসূতির পাশে সেনাবাহিনী

334

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥
রাঙামাটি পার্বত্য জেলার দূর্গম জুরাছড়ি উপজেলায় প্রসব বেদনায় কাতরাতে থাকা উপজাতি নারীর তাৎক্ষণিক চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে সেনাবাহিনী। বুধবার (২৪ জুন) বিকেলে রাঙামাটির জুরাছড়ি উপজেলার শেকলাছড়ি এলাকার বাসিন্দা আলপনা চাকমার প্রসব বেদনা ও রক্ত ক্ষরণের ফলে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে, পরিবারের লোকজন তাকে পঙ্খী নৌকাতে করে বন্দুকছড়ি সেনা ক্যাম্পে নিয়ে আসে।

বন্দুকছড়ি সেনা ক্যাম্পের আরএমও ক্যাপ্টেন সায়েম রুগীকে দেখার পর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে রাঙামাটিতে নিয়ে যেতে বলেন। তৎক্ষণাত বন্দুকছড়ি সেনা ক্যাম্পের স্পিড বোটে যোগে রাঙামাটি শহরে নিয়ে আসা হয়। এরপর রাঙামাটি রিজিয়নের সাথে যোগাযোগ করে সিএমএইচ থেকে এম্বুলেন্স এনে আলপনা চাকমাকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এদিকে আলপনা চাকমাকে দূর্গম জুড়াছড়ি থেকে রাঙামাটিতে আনা ও হাসপাতালে ভর্তি করানো সহ সবকিছু সেনা সদস্যরা অত্যান্ত আন্তরিকতার সহিত করেন। বর্তমানে সে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।

আলপনা চাকমার স্বামী শুনীল চাকমা সেনাবাহিনীর এই সহযোগীতা পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে তিনি বলেন, আজ আমার স্ত্রীকে দ্রুত হাসপাতালে আনতে না পারলে হয়তো আমার স্ত্রী মারা যেতো।

সেনাবাহিনীর এই সহযোগীতার কারণে আমার স্ত্রী এখন সু-চিকিৎসা পাচ্ছে। শুনীল চাকমা আরো বলেন আমি এবং আমার পরিবার  সেনাবাহিনীর প্রতি কৃতজ্ঞ।