জেএসএসের সমাবেশ বিরম্বনা : সড়কে আড়াই ঘন্টা চলাচল বন্ধ

440

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

 
স্টাফ রিপোর্টার, ২ ডিসেম্বর ২০১৫, দৈনিক রাঙামাটি : গতকাল ছিল পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির দেড়যুগ পূর্তি। এই চুক্তিকে সকলে শান্তিচুক্তি হিসেবেই অভিহিত করে থাকে। চুক্তি নিয়ে পাওয়া-না পাওয়া, হতাশা-বঞ্চনার হিসাব বেশ দীর্ঘ। আর এমনটা হতেই পারে। একটি অঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠীকে ঘিরে করা চুক্তি বাস্তবায়নের বাঁকে বাঁকে থাকে নানা বাধা ও আইনী প্রতিবন্ধকতা। তাই পৃথিবীর ইতিহাস হলো, এ ধরণের সকল চুক্তি নিয়েই আলোচনা সমালোচনা, হতাশা বঞ্চনা থাকবেই।

গতকাল চুক্তির বর্ষপূর্তি ঘিরে ছিল নানামুখি কর্মসূচি। কিন্তু জেএসএসের সমাবেশ চলার সময় প্রায় আড়াই ঘন্টা সময় দীর্ঘ এক কিলোমিটার সড়ক বন্ধ করে রাখা হয়। এতে বিপাকে পড়ে দেশ বিদেশের পর্যটক থেকে শুরু করে, অফিসগামী মানুষ, ব্যবসায়ী এবং ছাত্রছাত্রীরা। কেউ জানতো না মাঝপথে এমন প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। আগে থেকে ঘোষিত কোনো অবরোধ কর্মসূচিও ছিল না। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের দুর্ভোগ ছিল বর্ণনাতীত। স্কুলগুলোতে চলছে পরীক্ষা। ছাত্রছাত্রীরা আসতে না পারায় বিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষা শুরু হয় এক ঘন্টা পরে। পক্ষান্তরে ঘরে ফেরা ছাত্রছাত্রীরা গাড়িতে বসে থাকে ঘন্টার পর ঘন্টা। এত দীর্ঘ পথ বন্ধ রেখে আন্দোলনকারী নেতাকর্মীরা কি অর্জন করতে চেয়েছেন তা হয়তো তারাই ভালো বলতে পারবেন। তবে পথচারীদের বক্তব্য ছিল শান্তিচুক্তি ঘিরে কেন এই অশান্তি ? আইন শৃঙ্খলা বাহিনীই বা কোথায় ?

সম্পাদনা- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান