নানা আয়োজনে উন্মেষের ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

530

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

সর্বত্র সর্বদা মানব সেবায় এই মন্ত্রকে বুকে ধারণ করে বিগত পাঁচ বছর ধরে রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রামে মানবতার সেবায় কাজ করে যাচ্ছে রাঙামাটির একদল মানবতাবাদী তরুণের সংগঠন উন্মেষ।

প্রথম দিকে রক্তদান করা, রক্তদানে মানুষকে উৎসাহিত করা ও সচেতনতা সৃষ্টি করা ছিল তাদের কাজে। পরবর্তীতে দুঃস্থ অসহায় দরিদ্র রোগীদের পাশে থেকে সাধ্যমত সহযোগিতা দেয়াটাও সংগঠনের কর্মীরা নিজেদের কার্যক্রমের অর্ন্তভুক্ত করে। এসব তারুন্যদীপ্ত সেবামুলক কার্যক্রমের কারণে ইতোমধ্যে পার্বত্য অঞ্চলে সংগঠনটির নাম ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছে।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার পালিত হয়েছে উন্মেষের পঞ্চম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। উন্মেষের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে মঙ্গলবার রাঙামাটির বরকল উপজেলার সুবলং ইউনিয়নের বরুনাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজন করা হয় দিন্যবাপী নানা অনুষ্ঠান।

সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চলে অনুষ্ঠান। প্রথমে উন্মেষের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজন করা হয় আলোচনা সভা। সংগঠনের সভাপতি দীপেন চাকমার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতা চাকমা।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বরুনাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নীরকমল বড়–য়া, বরকল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বিহারী চাকমা, স্থানীয় মহিলা মেম্বার লক্ষীদেবী চাকমা , পানছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুমতি রঞ্জন চাকমা, বরুনাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিশারদ চাকমা উন্মেষের উপদেষ্টা ¯েœহাশীষ চাকমা প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, উন্মেষ বর্তমানে মানবতার সেবায় যে সকল কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। উন্মেষের সেবামুলক কার্যক্রমের কারণে এলাকার অনেক মানুষ নতুন ভাবে বাঁচার প্রেরণা খুজে পাচ্ছে।

প্রত্যন্ত এলাকায় গরীব, অসহায় মানুষের চিকিৎসা সেবা দান, রক্ত দান, ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগী, কিডনী বিকল হওয়া রোগীদের পাশে থেকে তাদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে উন্মেষ পার্বত্য এলাকার মানুষের কাছে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা লাভ করেছে।

প্রধান অতিথি রাঙামাটি সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতা চাকমা বলেন, উন্মেষ এই এলাকার মানুষের জন্য যে সেবামুলক কাজ করে যাচ্ছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসারযোগ্য।

মানবতাবাদী এই সংগঠনের সকল কর্মীকে তিনি ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানান এবং উন্মেষের সেবামুলক কাজে সহযোগিতা হিসেবে ৫ হাজার টাকা অনুদান ঘোষণা করেন। উন্মেষের যে কোন সেবামুলক কাজে পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি।

উন্মেষের সভাপতি দীপেন চাকমা জানান, ২০১২ সালে মাত্র ৫জন মিলে তারা সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। উন্মেষের সদস্য সংখ্যা বর্তমানে ৪’শর অধিক। রাঙামাটি ও খাগড়াছড়ির পাশাপাশি চট্টগ্রামেও সীমিত পরিসরে উন্মেষের কাজ চলছে।

তাদের কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে রক্তদান, অসহায় গরীব রোগীদের চিকিৎসা সহায়তার জন্য তহবিল সংগ্রহ, বিভিন্ন দিবস পালন করা। উন্মেষের ৩’শ জন রক্তদাতা ইতোমধ্যে বিভিন্ন রোগীর জন্য ১৭’শ ব্যাগের বেশি  রক্ত দান করেছেন।

বরুনাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে আয়োজিত উন্মেষের ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আলোচনা সভার পাশাপাশি চলে রক্তগ্রুপ নির্ণয়। ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নানা বয়সের মানুষ তাদের  রক্তগ্রুপ নির্ণয় করে।

উন্মেষের প্রশিক্ষিত কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীরা তাদের এ কাজে সহায়তা দেয়। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের মাঝে কাগজ-কলম শিক্ষা উপকরণও  বিতরণ করা হয়। এর মধ্যে পানছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৬০ ছাত্র-ছাত্রী ও বরুনাছড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মাঝে কাগজ ও কলম বিতরণ করে উন্মেষ।

আলোচনা সভা ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। রাঙামাটি সদর উপজেলার পেরাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অনন্ত রঞ্জন চাকমা ও রাঙামাটি সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী জোনাকি চাকমার দ্বৈত কন্ঠে চাকমাদের উভোগীত পরিবেশনের মধ্যে দিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। তাদের অসাধারণ পরিবেশনায় শ্রোতা ও দর্শকরা মুগ্ধ হন।

এছাড়া ঢাকার মাদল ব্যান্ডের সংগ্রামী চেতনা জাগানিয়া  পরিবেশনা ও রাঙামাটির  থাদার ব্যান্ডের বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় চাকমা গান ও চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গান পরিবেশনা শ্রোতা-দর্শকের মন কেড়ে নেয়। এছাড়াও  উন্মেষ কর্মীদের নির্দেশনা ও পরিচালনায় রক্তদান ও রক্তগ্রুপ নির্ণয় বিষয়ক চাকমা ভাষায় রচিত একটি নাটিকা পরিবেশন করা হয়।

আগামীতে আরো সুন্দরভাবে উন্মেষ তাদের কার্যক্রম পরিচালনায় এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।