নানিয়ারচরে জনপ্রতিনিধিদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

333

॥ মাহাদী বিন সুলতান ॥
“শেখ হাসিনার বারতা, নারী-পুরুষ সমতা” এই প্রতিপাদ্যে নথি সাইনিং পাওয়ার, পরিপত্রের ৩% বরাদ্দ এবং কেন্দ্রীয় দপ্তর স্থাপনের দাবীতে সারাদেশের ন্যায় নানিয়ারচরেও নারী জনপ্রতিনিধিদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আসমা আক্তার কর্তৃক আয়োজিত এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। মানববন্ধন শেষে উপজেলা পরিষদ হল রুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আসমা আক্তার’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর জামাল হাওলাদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নানিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ সাব্বির হোসেন, মহিলা ইউপি মেম্বার কুলসুম আক্তার এবং অনিতা চাকমা প্রমূখ।

এসময় বক্তারা বলেন, জনবহুল বাংলাদেশে অর্ধেকের বেশি নারী। নারীর ক্ষমতায়ন বর্তমান সরকারের মূল লক্ষ্যে। এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে নারী উন্নয়ন ফোরাম ৩টি দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আন্দোলন করে আসছে। গত ১লা সেপ্টেম্বর সারাদেশে ইউএনও মহোদয়দেরকে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। এছাড়াও ২২ নভেম্বর’২০ জাতীয় প্রেসক্লাবের সম্মুখে মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। সে প্রেক্ষিতে দাবী আদায়ের লক্ষ্যে ৭ ডিসেম্বর সারাদেশে উপজেলা প্রাঙ্গণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চেয়ারম্যান নুর জামাল হাওলাদার বলেন, নারীর ক্ষমতায়ন লক্ষ্যে সংসদ থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে সরকার নারী প্রতিনিধি নিশ্চিত করেছেন। তৃণমূল পর্যায়ে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করতে হলে নারী জনপ্রতিনিধিদের দাবী সমূহ বাস্তবায়ন করতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে আসমা আক্তার বলেন, নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত হলে, নারী নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যা বন্ধ হবে এবং সার্বিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। তিনি বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০১৩ সালে নারী উন্নয়ন ফোরাম প্রতিষ্ঠা হয়। কিন্তু লক্ষ্য অর্জন আজও সম্ভব হয়নি। তাই  লক্ষ্য অর্জনে আমরা মাঠে নামতে বাধ্য হয়েছি। লক্ষ্য পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আমরা মাঠে থাকব।