নানিয়ারচর সেনা জোনের অসহায়দের অর্থ সহায়তা

287

॥ মাহাদী বিন সুলতান ॥
প্রত্যান্ত পাহাড়ি জনপদ রাঙামাটি জেলার নানিয়ারচরে জনসাধারণের পাশে বন্ধুর মত কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নানিয়ারচর জোন। করোনা পরিস্থিতিতেও পাহাড়ি-বাঙালি ভেদাভেদ না করে আত্মমানবতার সেবায় জীবন বাজি রেখে কাজ করে যাচ্ছে সেনাবাহিনী।

বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নানিয়ারচর সেনা জোন কর্তৃক জনকল্যাণমূলক কর্মসূচির আওতায় অসহায়দের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান করে জোন কমান্ডার কাইয়ুম হোসেন (পিএসসি)।

এসময় তিনি উচ্চ মাধ্যমিকে ভর্তির জন্য এক ছাত্র, একজন ক্ষুদ্র কাঁচামাল ব্যবসায়ী ও ল্যাপটপ ক্রয়ের জন্য এক গণমাধ্যম কর্মীকে নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ক্ষুদ্র কাঁচামাল ব্যবসায়ী মোঃ ইউসুফ জানান, দীর্ঘদিন করোনার লকডাউনে থেকে ব্যবসা বা কাজকর্ম না থাকায় বড়ই অভাব অনটনে দিন কাটছে। এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের কোন পথ না থাকায় কাঁচামালের ব্যবসা আবার শুরু করব বলে জোন কমান্ডার মহাদয়ের নিকট আবেদন করি। তারই ফলশ্রুতিতে আজ স্যাঁর আমাকে ব্যবসা পরিচালনার জন্য কিছু অর্থ সহায়তা প্রদান করেছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পাহাড়ি সুবিধাভোগী জানান, “করোনা পরিস্থিতিতে আমরা সেনাবাহিনী থেকে বেশ কয়েকবার ত্রাণ সামগ্রী পেয়েছি। এছাড়াও ১ মিনিটের ঈদ বাজারে মাধ্যমে অসহায়দের ঈদ সামগ্রী প্রদান করেছে নানিয়ারচর সেনা জোন।

উল্লেখ্য, চলমান কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে স্থানীয়দের মাঝে দূর্গম পাহাড়ি এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ, ঈদ উপহার বিতরণ ছাড়াও সেনা জোন কর্তৃক জনকল্যাণমূলক কর্মসূচির আওতায় প্রতি মাসে স্থানীয় দুস্থ ও অসহায়দের মাঝে প্রয়োজনীয় সেবা ও নগদ অর্থ প্রদান করছে সেনাবাহিনী।