পাহাড়ের অনাবাদি জমি কাজে লাগিয়ে শস্য ফলন বাড়াতে হবে: অংসুই প্রু চৌধুরী

35

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

পাহাড়ের অনাবাদি জমি কাজে লাগিয়ে শস্যের ফলন বাড়ানোর জন্য কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা ও চাষিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন জেলা পরিষদ চেয়ার‌্যান অংসুই প্রু চৌধুরী। চেয়ারম্যান বলেন, যুদ্ধ ও করোনার কারণে বিশ্বজুড়ে অর্থনৈতিক যে মন্দার ঘনঘটা চলেছে, এই বৈশি^ক মন্দা মোকাবিলা করার জন্য আমাদের নতুন চিন্তায় সবাইকে উদ্যোগী হয়ে কাজ করতে হবে। দেশে যেন খাদ্যাভাব দেখা না দেয় সেই লক্ষ্যে মৌসুমভিত্তিক শস্য, ফলজ ও প্রাণীজ সম্পদের উৎপাদন বাড়ানোর উপর জোর দেন তিনি।

রোববার (২০ নভেম্বর ২০২২) রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ এর মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখার সময় এ আহ্বান জানান তিনি। জেলা পরিষদের এনেক্স ভবনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চেয়ারম্যান উৎপাদন বাড়ানোর বিষয়ে হস্তান্তরিত বিভাগগুলিকে পরিষদের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আশ^াস প্রদান করেন। তিনি বলেন, উন্নয়নমূলক কাজের যেকোন সমস্যা আন্তরিকতার সাথে সমাধানের চেষ্টা করা হবে। হস্তান্তরিত বিভাগ নিয়ে মাসিক সভা গতানুগতিক মনে হলেও সকল বিভাগের সমন্বয়ে বিভিন্ন্ বিভাগ সংশ্লিষ্ট সমস্যার সমাধান খুব সহজে করা যায় মন্তব্য করে বিভাগীয় কর্মকর্তাদেরকে সকল সভায় উপস্থিত থাকার অনুরোধ জানান তিনি।

পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাঃ আশরাফুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ যথাক্রমে সদস্য ঝর্ণা খীসা, সদস্য দিপ্তীময় তালুকদার, সদস্য অংসুই ছাইন চৌধুরী, সদস্য সবির কুমার চাকমা, সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, সদস্য নিউচিং মারমা, সদস্য ইলিপন চাকমা, সদস্য প্রিয় নন্দ চাকমা, সদস্য বিপুল ত্রিপুরা, সদস্য প্রবর্তক চাকমা, সদস্য মোসাম্মৎ আছমা বেগম, সদস্য মোঃ আব্দুর রহিম, নির্বাহী প্রকৌশলী বিরল বড়–য়া, প্রশাসনিক কর্মকর্তা জনাব মনতোষ চাকমা, হিসাব ও নিরীক্ষা কর্মকর্তা জনাব মোঃ খোরশেদুল আলম চৌধুরী এবং জনসংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরাসহ হস্তান্তরিত বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাগণ স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের কাজের অগ্রগতি তুলে ধরেন।
সভাশেষে মিশরে অনুষ্ঠিত বিশ^ জলবায়ু সম্মেলনে গ্লোবাল সেন্টার অন এডাপটেশান ইনক্লুসিভ লিডারশীপ ক্যাডাগরিতে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদকে প্রদানকৃত সম্মাননা স্মারকটি পরিষদ চেয়ারম্যানের নিকট হস্তান্তর করেন সম্মেলনে রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রতিনিধিত্বকারী জন সংযোগ কর্মকর্তা অরুনেন্দু ত্রিপুরা।