পাহাড়ের মানুষের জীবনমান ও অবকাঠামো উন্নয়নে সর্বোচ্চ জোর দেওয়ার হবে: সচিব হামিদা

335

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষের জীবন মান উন্নয়ন, প্রান্তিক শিশুদের পাড়া লেখা, রাস্তাঘাট এবং অবকাঠামো উন্নয়নে সর্বোচ্চ জোর দেওয়ার হবে বলে জানিয়েছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাঃ হামিদা বেগম। তিনি বলেন, বৈচিত্র্যপূর্ণ পরিবেশ এবং স্থানীয় চাহিদার ওপর ভিত্তি করে উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। যাতে করে এলাকার মানুষ উপকৃত হয়। তিনি পার্বত্য এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে মন্ত্রণালয়ের সাথে যেকোন বিষয়ে আলোচনা, পরামর্শ বা সহযোগিতার ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।
রাঙামাটিতে ড্যানিডা’র অর্থায়নে এসআইডি-সিএইচটি ইউএনডিপির সহযোগীতায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্প রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের বাস্তবায়িত “পার্বত্য চট্টগ্রাম জলবায়ু সহনশীল প্রকল্প (সিসিআরপি) কার্যক্রম পরির্দশন কালে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মোছাঃ হামিদা বেগম একথা বলেন।

শুক্রবার (২৭ আগষ্ট) সকালে রাঙামাটি সদর উপজেলার বালুখালী ইউনিয়ন ও শনিবার (২৮ আগষ্ট) সাপছড়ি ইউনিয়নে প্রকল্পের কার্যক্রম পরির্দশন করেন সচিব। এ সময় এ সময় সংশ্লিষ্ট জলবায়ু সহনশীন কমিটি ও স্থানীয় সুফল ভোগীদের সাথে মতবিনিময় করেন তিনি।

এ সময় সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমা তুজ জোহরা উপমা, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সিসিআরপির জেলা কর্মকর্তা পলাশ খীসা, এসআইডি-সিএইচটি, ইউএনডিপির ন্যাশনেল প্রোগ্রাম ম্যানেজার প্রশেনজিৎ চাকমা, এসআইডি-সিএইচটি, ইউএনডিপির চিফ লাইভলিহুড এন্ড আরএম বিপল্লব চাকমা, জেলা ম্যানেজার ঐশ্বয্য চাকমা, সিসিআরপির প্রোগ্রাম অফিসার একেএম আজাদ রহমান উপস্থিত ছিলেন। প্রকল্প পরির্দশন শেষে সচিব প্রকল্প কাযক্রমের সন্তোষ প্রকাশ করেন।