প্রতিমা ভাংচুরের প্রতিবাদে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ

563

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

॥ মঈন উদ্দীন বাপ্পী ॥

দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিমা ভাংচুর, পুরোহিত হত্যা, হিন্দুদের বাড়ি-ঘরে হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে সনাতন ধর্মালম্বীর বিভিন্ন সংগঠন।

বৃহস্পতিবার (০৩ নভেম্বর) পূজা উৎযাপন পরিষদ,সনাতন যুব পরিষদ,পুরোহিত কল্যাণ সমিতি এবং সনাতন ছাত্র সংসদের যৌথ উদ্যোগে সকালে রাঙামাটি পৌরসভা চত্বর থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসনের চত্বরে গিয়ে শেষ হয়।

বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী জেলা পূজা উৎযাপন পরিষদের সভাপতি অমর কুমার দে’র সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি জেলা পরিষদের সদস্য ত্রিদিব কান্তি দাশ, স্মৃতি বিকাশ ত্রিপুরা, রাঙামাটি সরকারি কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ ড.আলী রাণী আইচ, সাংবাদিক সুনিল কান্তি দে,জেলা পূজা উৎযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক পঞ্চানন ভট্টচার্য প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, দেশ যখন দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে, দেশের মানুষ যখন শান্তিতে, সম্প্রতিতে বসবাস করছে তখনি দেশের পরাজিত শক্তিরা দেশকে অস্থিতিশীল পরিবেশের দিকে ঠেলে দিতে দেশের সংখ্যা লঘুদের মঠ-মন্দিরে হামলা চালিয়েছে। তারা নির্বিচারে পুরোহিত-সেবায়েতদের হত্যা করছে। এ মৌলবাদি অপশক্তিরা শান্তি-সম্প্রতির দেশকে অশান্তিতে পরিণত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

OLYMPUS DIGITAL CAMERA
বক্তারা আরও বলেন, এ মৌলবাদ অপশক্তির অপকর্মকে প্রতিরোধ করতে না পারলে আমাদের এ সোনার দেশ ধ্বংস হয়ে যাবে। হিন্দু-মুসলিম,বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সকলে মিলে সেদিন এদেশকে স্বাধীন করেছিলো অসাম্প্রদায়িক চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে।

আমরা কোন মৌলবাদ দেশদ্রোহী অপশক্তির কাছে মাথা নত করতে চাইনা। সে মহান মুক্তিযুদ্ধের মতো এবারো এ মৌলবাদীদের এদেশ থেকে চিরতরে মুছে ফেলতে হবে। তা না হলে এদেশে সম্প্রতি বজায় থাকবে না।

বক্তারা এসময় ব্রাক্ষণবাড়িয়া,হবিগঞ্জ, গোপালগঞ্জে মঠ-মন্দিরে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, অবিলম্বে এসব ঘৃণিত অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।