প্রাথমিক শিক্ষাস্তরে মাতৃভাষায় শিক্ষার অগ্রগতি বিষয়ে জেলা পরিষদের মতবিনিময় সভা

360

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

করোনায় থমকে গেছে পাহাড়ের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিশুদের মাতৃভাষা শিক্ষা কার্যক্রম। অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে অন্যান্য বিষয়গুলো শিখানো হলেও মাতৃভাষার বিষয়গুলো শিখানো হয়নি। ফলে পরবর্তী শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হওয়া শিশুরা মাতৃভাষা শিক্ষা কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হয়েছে হাজার হাজার ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী শিক্ষার্থী। এ সমস্যার উত্তোরণ ঘটানোর জন্য মাতৃভাষায় পড়ানোর দক্ষ শিক্ষক ও শিক্ষা কার্যক্রমকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী।

রোববার (১৬ জানুয়ারী) সকালে রাঙামাটি জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে জেলার প্রাথমিক শিক্ষক, উপজেলা শিক্ষা, জেলা শিক্ষা অফিসারদের নিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ে মাতৃভাষার শিক্ষার অগ্রগতি বিষয়ক মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অংসুইপ্রু চৌধুরী এ কথা বলেন।

মতবিনিময় সভায় পরিষদের মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল ইসলাম, পরিষদের সদস্য প্রিয় নন্দ চাকমা, অংসুই ছাইন চৌধুরী, রেমলিয়ানা পাংখোয়া, আব্দুর রহিম, ইলিপন চাকমা, প্রবর্তক চাকমা, নিউচিং মারমা, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সাজ্জাদ হোসেন, জুরাছড়ি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৌশিক চাকমা, কাউখালী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মানস মুকুর চাকমা, রাঙামাটি সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার দীপিকা খীসা, অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক মংসানু চৌধুরী, নিরূপা দেওয়ান, প্রছন্ন কুমার চাকমা প্রমূখ।

এসময় শিক্ষকরা বলেন, বিদ্যালয়ে মাতৃভাষার বই বিতরণ করা হলেও শিক্ষকদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়নি। ফলে বিদ্যালয়ে শিশুদের বই বিতরণ করা হলে শিক্ষকদের দক্ষতার অভাবে তা শিশুদের পড়ানো সম্ভব হচ্ছে না। এ শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করতে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শিক্ষকদের তৈরী করার আহ্বান জানান তারা।
সভায় রাঙামাটির বিভিন্ন উপজেলার শিক্ষা কর্মকর্তা ও বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষাবিদরা উপস্থিত ছিলেন।