বাঘাইছড়িতে দীপংকর তালুকদার : পাহাড়ের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে গণআন্দোলন গড়ে তোলার ডাক

440

P.1-3

আলমগীর মানিক- ৭ মার্চ ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : পার্বত্য চট্টগ্রামে আঞ্চলিক রাজনীতির নামে ব্যবহৃত অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে গণআন্দোলনের ডাক দিলেন সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার। সোমবার বাঘাইছড়িতে নবনির্মিত দলীয় অফিস ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার এই ঘোষণা দেন।

এ সময় তিনি আরো বলেন, শান্তি চুক্তির পথ ধরে পার্বত্য চট্টগ্রামে আমরা যখন ধীরে ধীরে গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির পথে এগিয়ে যাচ্ছি তখন একটি মহল অস্ত্রের দাপটে সাধারণ মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলায় মেতে উঠেছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মুত্যুকে ভয় করে না, সুতরাং আওয়ামী পরিবারের সদস্যদের হুমকি আর হত্যার ভয় দেখিয়ে পক্ষান্তরে নিজেদের দেওলিয়াপনাই জানান দিচ্ছে তারা।

তিনি বলেন, জেএসএস সভাপতি সন্তু লারমা আওয়ামী লীগের উপর ক্ষেপেছেন। যারা মিথ্যা কথা বলে অভ্যস্ত তারাই আবার মানবাধিকারের কথা বলে বেড়ায়। এই সন্ত্রাসীদের অত্যাচারের মাত্রা বর্তমানে এতোই বৃদ্ধি পেয়েছে যে, কৃষি পণ্য, ঘর-বাড়ি-ব্যবসা বাণিজ্যসহ সকল কিছু থেকে নির্দিষ্ট হারে চাঁদা নিয়েও তারা ক্ষান্ত হচ্ছে না। পাহাড়ের চাঁদাবাজিতে এবার নতুন করে যোগ হয়েছে, বিয়ে করতেও টোকেন কাটতে হয়। অদূর ভবিষ্যতে মনে হয় স্বামী-স্ত্রীর জন্যও আঞ্চলিক দলের কাছ থেকে টোকেন কাটতে হবে। সম্প্রতি সংসদে প্রশ্নত্তোরপর্বে শান্তি চুক্তির আশি ভাগ বাস্তবায়ন হয়েছে মর্মে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রেক্ষিতে সংসদ সদস্য উষাতন তালুকদার ধন্যবাদ জ্ঞাপন তিনি উষাতনকে রাঙামাটিবাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন এই ধরনের গণতান্ত্রিক আচরন রাজনীতির মাঠেও বিরাজমান রাখুন তাতে জনগণ আপনাদের পাশে থাকবে।

বাঘাইছড়ি উপজেলা সদরে দলীয় কার্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত এই সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু বলেন, পাহাড়ের অবৈধ অস্ত্রবাজদের অত্যাচারে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। তাদেরকে এই অবস্থা থেকে মুক্ত করতে শীঘ্রই পার্বত্য চট্টগ্রামে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে হবে। নতুবা অবৈধ অস্ত্রবাজদের অব্যাহত তান্ডবে সংক্ষুব্ধ মানুষের ক্ষোভের বিস্ফোরণ ঘটবে। তখ পরিস্থিতি হয়তো আমাদের নিয়ন্ত্রণে নাও থাকতে পারে। তাই আমাদের সকলের স্ব-স্ব অবস্থান থেকে অবৈধ অস্ত্রবাজ ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাঘাইছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বৃষকেতু চাকমার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি পৌর সভার মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী, রাঙামাটি জেলা পরিষদের সদস্যবৃন্দ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন মামুন, যুবলীগ নেতা জমির উদ্দিনসহ বিভিন্ন উপজেলা থেকে আগত নেতৃবৃন্দ ও বাঘাইছড়ি উপজেলার আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগ কৃষকলীগসহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা। আরোচনা সভাশেষে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে অতিথিবৃন্দ দলীয় কার্যালয়ের নাম ফলক উম্মোচন করেন।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান