বান্দরবানের আলীকদমে ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি ॥ ৬ জনের মৃত্যু

177

॥ নুরুল কবির ॥

বান্দরবান পাবত্য জেলার আলীকদম উপজেলার দূর্গম কুরুকপাতা ইউনিয়নের দুইটি পাড়ায় ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়ে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত শুক্রবার থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত চারদিনে উপজেলার দূর্গম কুরুকপাতা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন মাংরুম পাড়ার মাংদম ম্রো, ঙানলি ম্রো, রেংচং ম্রো, ইয়ুংচা পাড়ার তুমলত ম্রো, কাইসার ম্রো, রামদন ম্রো। এই রোগে আক্রান্ত হয়েছে তিনটি পাড়ার প্রায় শতাধিক লোক।

জানা যায়- আলীকদম উপজেলার করুক পাতা ইউনিয়নের দূর্গম কয়েকটি এলাকায় বিশুদ্ধ পানির অভাবে দূষিত পানি পান করায় এলাকাবাসীদের মধ্যে পানিবাহিত রোগ ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। মোবাইল নেটওয়ার্ক ও যাতায়াত ব্যবস্থা না থাকায় সেখানে চিকিৎসার অভাবে প্রায় ২টি পাড়ার সবকটি পরিবার এই রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে। দূর্গম এলাকায় ঔষধপত্র ও খাবার স্যালাইন না থাকায় সঠিক চিকিৎসার অভাবে গত শুক্রবার (১১ জুন) সকাল থেকে সোমবার পর্যন্ত ৫নং ওয়ার্ডের ২টি পাড়ায় ম্রো সম্প্রদায়ের ৬ জনের মৃত্যু হয়।

পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও মুরুং নেতা সিয়ং ইয়ং ম্রো বলেন আলীকদম উপজেলার দূর্গম কুরুকপাতা ইউনিয়নের কয়েকটি পাড়ায় ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। দূর্গম এলাকা ও প্রয়োজনীয় ঔষধপত্রের অভাবে এই আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে দুটি পাড়ার বেশ কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে এবং আক্রান্ত হয়েছে প্রায় শতাধিক মানুষ। স্থানীয় ঝিড়ি ঝর্নার পানি শুকিয়ে যাওয়ায় এলাকাবাসী বিভিন্ন উৎস থেকে দূষিত পানি পান করায় ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তাছাড়াও দূর্গম এলাকা হওয়ায় সঠিক চিকিৎসার অভাবে রোগটি দ্রুত সময়ে এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। আর যোগাযোগ ব্যবস্থা না থাকায় পায়ে হাটার পথ হওয়ায় রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে আসাও সম্ভব হচ্ছে না। তবে সেনাবাহিনীর সাথে ওষধপত্রসহ স্বাস্থ্য বিভাগের মানুষ পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে গত বৃহস্পতিবার কুরুকপাতা ইইনয়নের কচ্ছপতলী এলাকায় জেনোরং ত্রিপুরা (৪৪) নামে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে তার নাতি ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে আলিকদম হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বর্তমানে আলীকদম হাসপাতালে ২০ জনের অধিক রোগী ভর্তি রয়েছে। আলিকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. শাহরিয়ার জানান কুরুকপাতা ইউনিয়নে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কয়েকজন মারা যাওয়ার খবর পেয়েছি তবে সঠিক কতজন মারা গেছে তা জানা যায়নি। আক্রান্ত অনেকে হাসপাতালে আছে তাদেরকে চিকিৎসা দিচ্ছি তারা এখন অনেকটা সুস্থ্য।

বান্দরবান জেলার সিভিল সার্জন ডা: অংসুইপ্রু মারমা বলেছেন দূর্গম করুকপাতা ইউনিয়নে ৫নং ওয়ার্ডের কয়েকটি পাড়ার লোকজন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে। ৬ জনের মৃত্যুর খবর শুনেছি। আমাদের দুইটি মেডিকেল টিম প্রয়োজনীয় ঔষধপত্র নিয়ে সেখানে পাঠানো হয়েছে। সেনাবাহিনীর সাথে হেলিকপ্টারে একটি টিম পাঠানো হয়েছে আরেকটি টিম স্থানীয় প্রতিনিধিদের সাথে আরেকটি টিম পাঠানো হয়েছে। দূর্গম এলাকা হওয়ায় যাতায়াত ব্যবস্থা না থাকায় পায়ে হেঁটে ও নৌপথে সেখানে পৌঁছাতে তাদের সময় লাগছে। মেডিকেল টিম ফিরে আসলে বিস্তারিত জানা যাবে।