বান্দরবানে পাচার সময় ৪শিশু উদ্ধার আটক ২

603


॥বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবানে শিশু পাচারকারী সন্দেহে দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় বান্দরবানের চৌধুরী মাকেটস্থ অবস্থিত অতিথি আবাসিক হোটেল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ৪ উপজাতি শিশুকে।রোববার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ব্যক্তির নাম আবু বক্কর সিদ্দিক (৪৪) প্রকাশ মং শৈ প্রু ত্রিপুরা। তিনি নওমুসলিম এবং পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মোঃ হাসান নামের আরো একজনকে আটক করে পুলিশ । আবু বক্কর সিদ্দিক (৪৪) প্রকাশ মং শৈ প্রু ত্রিপুরা তা বাড়ি শহরের ৯নং ওয়াডের ইসলামপুরের নওমুসলিম পাড়ায় এবং মো: হাসানের গ্রামের বাড়ী কুমিল্লা বলে জানা গেছে । তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ শহরের চৌধুরী মাকেট এলাকার আবাসিক হোটেল অতিথি থেকে ৪ শিশুকে উদ্ধার করে পুলিশ ।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা রফিক উল্লাহ জানান, নওমুসলিম আবু বক্কর সিদ্দিক ঢাকায় বিনা খরচে পড়া লেখা করানোর কথা বলে রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নের বেত ছড়া মুখ, বৈদ্য পাড়া ও হেডম্যান পাড়া থেকে ৪ শিশুকে শহরে নিয়ে আসে।

উদ্ধার করা শিশুরা হলো- বেতছড়া মুখ পাড়ার মংচ মার্মা পুত্র সাউপ্রু মারমা, হেডম্যান পাড়ার উহ্লাঅং মারমার মেয়ে মাচিং সই মারমা (১২), একই পাড়ার পাচিনু মারমার ছেলে থোয়াইহ্লা মারমা(৮), মারমার মেয়ে নুচিং উ মারমা (১২) ও বৈদ্য পাড়ার অংথোয়াই চিং এর মেয়ে মেচিং মারমা (১১)। শিশুদের অভিভাবকদেরকে আবু বক্কর ঢাকায় বিনা খরচে পড়া লেখা করানোর নানা লোভ দেখায়। ৪ শিশুকে আবাসিক হোটেল অতিথিতে এনে রাখলে খবরটি পুলিশের কাছে পৌঁছায়।

রোববার পুলিশ রাতে শহরের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে একটি কম্পিউটারের দোকান থেকে আবু বক্করকে আটক করে। এ সময় সুমন খেয়াং নামের অপর এক ব্যক্তি সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

পরে আবু বক্করের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হোটেল অতিথি থেকে ৪ শিশুকে উদ্ধার করা হয়। এবং রাতে পরে আবু বক্করের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মোঃ হাসান নামের আরো একজনকে আটক করে পুলিশ শিশু মাচিং সই এর বাবা উহ্লাঅং মারমা জানান, এলাকার স্কুলে ৫ম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ালেখা করেছে তার মেয়ে। কিন্তু এখন আর টাকার অভাবে পড়ালেখা করাতে পারছেন না। তাই আবু বক্করের লোভে পা দিয়েছেন। ঢাকার কোন স্কুলে পড়ালেখা করানো হবে তা আবু বক্কর তাদের জানায়নি।