বান্দরবানে পৌঁছেনি ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠির মাতৃভাষায় পুস্তক

605

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥

বান্দরবান জেলায় এখনও পৌঁছেনি প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের নতুন পুস্তক। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেশের ক্ষুদ্র জনগোষ্ঠীর শিশু শিক্ষার্থীরা যাতে তাদের মাতৃভাষায় শিক্ষাক্রম নিশ্চিত করতে পারে সেই লক্ষ্যে প্রয়োজন সংখ্যক পুস্তক সরবরাহ দেয়ার কথা জাতীয় পাঠ্যপুস্তক কারিকুলাম বিভাগ থেকে। কিন্তু জেলার ক্ষুদ্র গোষ্ঠির শিশু শিক্ষার্থীরা সোমবার পুস্তক পায়নি সরবরাহ না থাকায়।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনন্দ কিশোর সাহা বলেন, মন্ত্রণালয়ে এবার সারা দেশে ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠিদের মাতৃভাষায় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চাকমা, মারমা ত্রিপুরা ,তঞ্চঙ্গ্যাসহ বান্দরবানে ১০৫০২ জন শিক্ষার্থীর মাঝে তাদের ভাষায় বই বিতরণের কথা ছিল। এর মধ্যে চাকমা ২০৮, মারমা ৪২৩৫, ত্রিপুরা ৮৬৫, তঞ্চঙ্গ্যা ৭৩ ও অন্যান্য সম্প্রদায়ের ৫১২১ জনের মাঝে বই বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা দেয়া হয়েছিল। পুস্তকগুলো শিগগিরই সরবরাহ করা হবে বলে তিনি জানান

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের তথ্য মতে জেলার ৭টি উপজেলায় প্রাক-্প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্য ৩৫২টি। ৩৪৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ১হাজার ১২২টি বিদ্যালয় রয়েছে। সরকারি ও অন্যান্য প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর ৮৬ হাজার শিশু শিক্ষার্থীর হাতে হাতে ৩ লাখ ১১ হাজার ১০টি নতুন পুস্তক বিতরণ করা হলেও জেলার উপজাতীয় শিশু শিক্ষার্থীরা বছরের শুরুতে পুস্তক না পাওয়ায় পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লাও ক্ষোভ প্রকাশ করে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।