বান্দরবানে বুস্টার ডোজ টিকা গ্রহণ করলেন পার্বত্যমন্ত্রী

355

॥ নুরুল কবির, বান্দরবান ॥

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেছেন, করোনা একটি ভয়াবহ রোগ। এটি দেখা যায় না, ছোঁয়া যায় না। কিন্তু এতে মানুষকে আক্রান্ত করে, প্রাণও কেড়ে নেয়। তাই করোনা থেকে সবাইকে সুরক্ষা প্রয়োজন। বীর বাহাদুর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বের কারণে বাংলাদেশে করোনার টিকা অনেক দেশের আগেই শুরু হয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা কার্যক্রম কোথাও শেষ, কোথায় চলমান। প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা যাঁরা সম্পন্ন করেছেনতাঁদেরকে করোনা থেকে অধিক সুরক্ষার জন্য বুস্টার ডোজ (তৃতীয় ডোজ) টিকা দেওয়ার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে সরকার। বান্দরবানেও এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তাই প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ টিকা গ্রহণ সম্পন্নকারীদের বুস্টার ডোজ টিকা গ্রহণ করা প্রয়োজন।

রোববার সকাল ৯টায় বান্দরবানে বুস্টার ডোজ টিকা কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এসব কথা বলেন। বান্দরবান সদর হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে বীর বাহাদুর নিজে বুস্টার ডোজ টিকা গ্রহণ করে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল কুদ্দুছ ফরাজী।

সিভিল সার্জন জানান, প্রথম পর্যায়ে কেবলমাত্র সদর হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে বুস্টার ডোজ টিকা দেয়া হবে। শুক্রবার ছাড়া প্রতিদিনই বুস্টার ডোজ টিকা দেয়া হবে। এছাড়া প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ এবং শিক্ষার্থীদের ফাইজার টিকা কার্যক্রমও চলমান থাকবে।

ডা. অংসুই প্রু জানান, রোববার বুস্টার ডোজ টিকা কার্যক্রম উদ্বোধনের পর পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি প্রথমে টিকা নেন। এরপর পর্যায়ক্রমে জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, সিভিল সার্জন ডা. অংসুই প্রু মারমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল কুদ্দুছ ফরাজী এবং ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মংটিংঞো-ও বুস্টার ডোজ টিকা গ্রহণ করে।

পরে সাধারণের জন্য বুস্টার ডোজ টিক্র কার্যক্রম শুরু হয়। শুক্রবার ছাড়া প্রতিদিনই বান্দরবান সদর হাসপাতালে বুস্টার ডোজ টিকা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সিভিল সার্জন জানান। বান্দরবান স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে বর্তমানে সিনোফাম টিকা মজুত রয়েছে ২ লাখ ২০ হাজার ৫৪৫ ডোজ এবং ফাইজার টিকা মজুত রয়েছে ১৪ হাজার ৬৮৫ ডোজ। এই টিকা থেকেই বুস্টার ডোজ হিসেবে টিকা দেওয়া হবে।