বিলাইছড়ি সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণে আহত তিন

570

baust

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নে স্থল মাইন বিস্ফোরণে তিনজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এলাকাটি রাঙামাটি জেলার মধ্যে হলেও এই এঠাকার যোগাযোগ বান্দরবানের সাথে সহজ। সূত্র জানায়, বান্দরবান-মায়ানমার সীমান্তবর্তী বড়থলি ইউনিয়নের জারুলছড়ি গ্রামে শনিবার বিকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো রিংরাউ ম্রো ও পুইকুয়ে নাং খুমি ও কুলে খুমি। আহতদের রোববার দুপুরে বান্দরবানের রুমা উপজেলা সদরে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

বড়থলি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান আপ্রুমং মারমা জানান, আহত তিনজন শনিবার রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নের জারুলছড়ি এলাকায় পাহাড়ি গয়াল কিনতে যান। তারা সীমান্তের কাছাকাছি এলাকায় গয়াল খুঁজতে গেলে সেখানে বিস্ফোরণে তিনজন আহত হন। তাদের উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী বান্দরবানের রুমা উপজেলার সেনাবাহিনীর সুংসং পাড়া ক্যাম্পে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাদের রোববার সকালে বান্দরবানের রুমা উপজেলা সদরে নিয়ে আসা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, আহতদের মধ্যে পুইকুয়ে নাং খুমি ও কুলে খুমির বাড়ি বান্দরবানের রুমা উপজেলার প্রু ংফু খুমি পাড়ায়। অন্যজন রিংরাউ ম্রোর বাড়ি জারুল বড়থলির জারুলছড়ি পাড়ায়। বিস্ফোরকটি কি ছিল তা জানা না গেলেও স্থানীয়রা বলছেন এটি স্থলমাইন সদৃশ্য বিস্ফোরক হতে পারে। সীমান্তে বিচ্ছিন্নতাবাদী ও সন্ত্রাসী তৎপরতা দমনে মায়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী এসব বিস্ফোরকগুলো মাটিতে পুঁতে রাখে বলে সীমান্তের বসবাসকারী লোকজন জানিয়েছেন।

বড়থলি ইউনিয়নের ৯ নং ওয়াডের  ইউপি সদস্য ইয়ংরু ¤্রাে জানান, বিস্ফোরণে দুইজন মারাত্মক আহত হয়েছেন। রুমা সেনাবাহিনী জোনের অধিনায়ক লে. কর্নেল আরিফুল ইসলাম জানান, তিনজনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে তারা কিভাবে আহত হয়েছেন তা জানা যায়নি। আহতদের চিকিৎসার জন্য বান্দরবানের রুমায় সেনাবাহিনী জোনের চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে আসা হয়েছে।