ব্র্যাকের লিঙ্গ সংবেদনশীল শিক্ষা বিষয়ে রাঙামাটিতে অবহিতকরণ সভা

87

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

পার্বত্যাঞ্চলের প্রাথমিক ও মাধ্যমি শিক্ষা ব্যবস্থায় ভূমিকা রাখছে বেসরকারি এনজিও সংস্থা ব্র্যাক। ভাষাগত দক্ষতার পাশাপাশি ইংরেজি ও গণিত বিষয়ে পারদর্শী করে গড়ে তোলা হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। শুধু রাঙামাটি সদর উপজেলা নয়। বান্দরবানের ৬টি উপজেলায় শিক্ষা, জেন্ডার স্কিলস বিষয়ে কাজ করছে ব্রাক। ২০২০ থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ১৭টি মাধ্যমিক ও ৩টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কাজ করছে এ সংস্থাটি।

বুধবার সকাল ১১টায় রাঙামাটি জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে ব্র্যাকের উদ্যোগে আয়োজিত জেন্ডার রেসপন্সিভ এডুকেশন অ্যান্ড স্কিলস প্রোগ্রাম ইন চট্টগ্রাম হিল ট্ট্যাক্টস প্রকল্প অবহিতকরণ সভায় এসব তথ্য জানায় রাঙামাটি ব্র্যাক জেলা সমন্বায়কারী মো. হাবিবুর রহমান।

এসময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ। এছাড়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্ত মোঃ মোস্তফা জাবেদ কায়সার, ব্র্যাক কর্মকর্তা মো. সাখাওয়াতুল ইসলাম, ব্র্যাকের এলাকা ব্যবস্থাপক পুষ্পিতা চাকমা উপস্থিত ছিলেন।

রাঙামাটি ব্র্যাক জেলা সমন্বায়কারী মো. হাবিবুর রহমান বলেন, তিন পার্বত্য জেলার মধ্যে রাঙামাটি ও বান্দরবানে সুবিধা বঞ্চিত ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী ও বাঙালী শিক্ষার্থীদের নিয়ে কাজ করছে ব্রাক। শিক্ষার্থীদের পড়া লেখার মানন্নোয়নের জন্য শিক্ষকদের উন্নত প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, একই সাথে বিদ্যালয়গুলোতে গণিত মেলা, বিজ্ঞান চর্চা, দেওয়ালিপিকা প্রকাশের আয়োজ করে থাকে ব্র্যাক। এছাড়া বিদ্যালয়ের বিষয় ভিত্তিক প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে প্রধান শিক্ষক ও সহকারি শিক্ষকদের। যাতে পাড়া লেখার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল কাজে নিয়জিত করা যায়। আগামীতেও ব্র্যাকের উন্নয়ণ কর্মকান্ড অব্যাহত থাকরে।

ব্র্যাকের জেন্ডার রেসপন্সিভ এডুকেশন অ্যান্ড স্কিলস প্রোগ্রাম ইন চট্টগ্রাম হিল ট্ট্যাক্টস প্রকল্প অবহিতকরণ তৃতীয় সভায় রাঙামাটির বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রাধন শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকরা অংশগ্রহন করেন। সভা শেষে ব্র্যাকের পক্ষ থেকে বিদ্যালয়ের জন্য কিছু শিক্ষা উপকরণ শিক্ষকদের তুলেদের অতিথিরা।