মাদকাসক্ত সন্তানদের হাতে আহত নার্গিস বেগম: থানায় মামলা, ছেলে তানভীর গ্রেফতার

559
(বামে) সন্তানদের হাতুড়ির আঘাতে আহত-রক্তাক্ত নার্গিস বেগম, (ডানে) ছেলে তানভীর ও মেয়ে নেয়নার সাথে মা নার্গিস বেগম। ছবি সংগ্রহিত
(বামে) সন্তানদের হাতুড়ির আঘাতে আহত-রক্তাক্ত নার্গিস বেগম, (ডানে) ছেলে তানভীর ও মেয়ে নেয়নার সাথে মা নার্গিস বেগম। ছবি সংগ্রহিত
(বামে) সন্তানদের হাতুড়ির আঘাতে আহত-রক্তাক্ত নার্গিস বেগম, (ডানে) ছেলে তানভীর ও মেয়ে নেয়নার সাথে মা নার্গিস বেগম। ছবি সংগ্রহিত

১৬ অক্টোবর ২০২১, ঢাকা ব্যুরো অফিস, দৈনিক রাঙামাটি।
ঢাকার মোহাম্মাদপুর থানার ২/২ লালমাটিয়া নিবাসি নার্গিস বেগমকে তার মাদকাসক্ত সন্তানরা সংঘবদ্ধ হয়ে মেরে গুরুতর ভাবে আহত করেছে। এমন অভিযোগে ছেলে তানভীর আহমেদ সোহেলকে গ্রেফতার করেছে মোহাম্মদপুর থানা কর্তৃপক্ষ। থানায় এ সংক্রন্ত একটি মামলা করেছেন নার্গিস বেগম। মামলায় তানভীর আহমেদ সোহেল ও নেয়না আহমেদ শান্তা, তাদের বাসার কার্মচারি জেনেভাক্যাম্প নিবাসি মঈনুদ্দিন, বাড়ির ভড়াটিয়া উবার (হোন্ডা) চালক জামিরুল ইসলাম জামিল ও জনৈক জসিমকে আসামী করা হয়।

জানা গেছে, গত কাল ১৫ অক্টোবর ২০২১, সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে নার্গিস বেগম তার নিজ বাড়ির দোতলায় নতুন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ‘নার্গিস মেকওভার’ নামক বিউটি পার্লারে বসে ছিলেন। এসময় তার ছেলে তানভীর ও মেয়ে নেয়না উল্লেখিতদের নিয়ে অতর্কিত ভাবে নার্গিস বেগমের উপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এসময় তার আর্ত চিৎকারে আসপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। নার্গিস বেগম জানান, আসামীরা তাকে হামড়ি, দোকানের শাটারের তালা ও লাঠি দিয়ে এলো পাথারি ভাবে মারধর করতে থাকে। তাতে তার মাথা ফেটে যায় এবং পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত পান। এরপর রক্তাক্ত শরীরের তিনি থানায় গিয়ে অভিযোগ দিলে ওসির নির্দেশে তার ছেলে তানভীর আহমেদ সোহেলকে গ্রেফতার করা হয়। অন্য আসামীরা পালাতক রয়েছে। একটি সূত্র জানিয়েছে, দীর্ঘ দিন ধরে মা ও সন্তানদের মধ্যে বাড়ির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দ্ব›দ্ব রয়েছে। এ ঘটনায় বিস্তারিত সংবাদ ইতিপূর্বে একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়েছে।

শামীমুল আহসান
ঢাকা ব্যুরো প্রধান- দৈনিক, রাঙামাটি