রাইখালীতে অবৈধ বালি উত্তোলনের যন্ত্রপাতি জব্দ

106

॥ কাপ্তাই প্রতিনিধি ॥

কাপ্তাই উপজেলাধীন ২নং রাইখালী ইউনিয়নের পূর্ব কোদালার ষাটতলী নামক এলাকায় অবৈধ ভাবে পাহাড়কেটে বালি উত্তোলনের সময় বালি তোলার ৩টি ড্রেজার মেশিন, সাড়ে ৪শ ফুট পাইপ, ১৫ লিটার ডিজেল এবং ১৩ হাজার ঘনফুটের ২টি বালির স্তুপ জব্দ করেছে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান।

সোমবার তিনি এই অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় ৩টি পাহাড় কেটে অবৈধ ভাবে বালি উত্তোলন করে পাচারের জন্য প্রস্তুত রাখা স্তুপকৃত বালি সহ অন্যান্য যন্ত্রাংশ জব্দ করা হয়।

এদিকে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের খবর পেয়ে বালু উত্তোলনকারীরা পালিয়ে যায়। অভিযানে কাপ্তাই ৪১ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্নেল সাব্বির আহমেদ, চন্দ্রঘোনা থানার এএসআই মোঃ ইকবাল হোসেন সহ বিজিবি ও পুলিশ সদস্যরা ভ্রাম্যমান আদালতকে সহায়তা করে।

বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্নেল সাব্বির আহমেদ জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ কর্তৃপক্ষের অগোচরে অভিনব পদ্ধতিতে একটি সিন্ডিকেট বিভিন্ন স্থানে অবৈধ বালি উত্তোলন করে আসছিলো এবং নির্বিচারে পাহাড় ধ্বংস করছিলো। আজকে আমরা বেসামরিক প্রশাসনের সহায়তায় বিজিবির সদস্যদের নিয়ে অভিযান পরিচালনা করেছি। আগামীতেও এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুনতাসির জাহান জানান, অনেকদিন ধরে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ীরা অবৈধভাবে ছড়া, পাহাড় ও কৃষিজমি কেটে বালি উত্তোলন করে আসছে, যা আইনগত সম্পূর্ণ অবৈধ। এর ফলে আশেপাশের কৃষি জমিগুলো নষ্ট হচ্ছে, পরিবেশের বিপর্যয় ঘটছে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে আমরা আজ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছি। পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।
পরে উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে ২,৫০০০০ টাকায় স্তুপকৃত বালি বিক্রি করে সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বালুমহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন, ২০১০ এর ৪ ধারা লংঘনের অপরাধে ৬০,০০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।