রাঙামাটিতে বুদ্ধিজীবি হত্যা দিবসে দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধাচারণকারীদের জন্য হুঁশিয়ারি দীপংকর তালুকদারের

265

OLYMPUS DIGITAL CAMERA

 
মঈন উদ্দীন বাপ্পী, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৫, দৈনিক রাঙামাটি : রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেছেন, এবারের পৌর নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচন। আর এ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দ্রের নির্দেশে নৌকা প্রতীক নিয়ে আকবর হোসেনকে নির্বাচন করার জন্য দলীয় মনোনয়ন প্রদান করা হয়েছে। তাই দলের সকল নেতা-কর্মীদের প্রতি নির্দেশ করছি, পৌর নির্বাচনে আপনারা সকলে আকবর হোসেনের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা এবং ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে আকবর হোসেনকে জয়যুক্ত করে বিজয়ের মাসে রাঙামাটির পৌরসভা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিবেন। যারা এখনো দলীয় প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করছেন না, তাদের প্রতি আবারো হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, দলের স্বার্থে, দলীয় প্রার্থীর পক্ষে কাজ করুন। কোনও নেতা-কর্মী যদি দলীয় প্রার্থীদের বিরুদ্ধে গিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার প্রমাণ পাওয়া গেলে দলীয় সকল সদস্য পদ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হবে।

সোমবার বিকালে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে শহীদ বুদ্ধিজীবি হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন। দলীয় কার্যালয়ে এই সভার আয়োজন করা হয়। তিনি আরো বলেন, জাতীয় নির্বাচন, উপজেলা নির্বাচনে ঝুঁকিপর্ণ সেন্টার ছিলো, যার ফলে পেশী বলের কাছে আমরা হেরেছি। কিন্তু পৌর নির্বাচনে ঝুঁকিপূর্ণ সেন্টার কম থাকায় পেশী বলের প্রয়োগ করা অনেকাংশে কম হবে। আমরা  দলীয় প্রার্থীর জন্য ঐক্যবদ্ধ হযে কাজ করতে পারলে পৌরসভায় নির্বাচনে আমাদের জয় নিশ্চিত করা যাবে।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুছা মাতব্বরের সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমীন, চিংকিউ রোয়াজা, নিখিল কুমার চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য ও সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন মনি চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য জেবুন্নেসা রহিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। সভাপতির বক্তব্য দীপংকর তালুকদার বলেন, ত্রিশ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে এদেশের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। কিন্তু এদেশকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র লিপ্ত হচ্ছে একশ্রেণীর দালাল। যারা ১৯৭১ সালেও এদেশকে ধ্বংস করেছে। নিজেরা পরাজিত হবে ভেবে সেদিন দেশের বুদ্ধিজীবিদের নৃশংস ভাবে হত্যা করে। আজ তাদের ফাঁসি দেওয়া হচ্ছে। দীর্ঘবছর পর হলেও স্বাধীন দেশে তাদের বিচার হচ্ছে। আর সম্ভব হচ্ছে একমাত্র শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ফলে।

আলোচনা সভা শেষে দলীয় কার্যালয় থেকে দলীয় প্রার্থী আকবর হোসেনের পক্ষে শহরে একটি মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে দলীয কার্যালয়ে এসে মিছিলটি শেষ হয়।

পোস্ট করেন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান