রাঙামাটিতে মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সন্তু লারমাকে দীপংকর তালুকদার : বন্ধু মিথ্যাচার করবেন না, জনতা ফুঁসে উঠলে পালানোর পথ পাবেন না।

293

p..2-1

মইন উদ্দীন বাপ্পী- ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষযক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার জেএসএস নেতা সন্তু লারমাকে বন্ধু হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, বন্ধু মিথ্যাচার করবেন না; যদি মিথ্যাচার করেন তাহলে জিহ্বা টেনে ছিড়ে ফেলা হবে। আপনার মনোনিত নেতা বর্তমান সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার ৯ ফেব্র“য়ারী জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন পর্বে উদ্দেশ্য করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ; ৮০ ভাগ চুক্তি সম্পাদান করার জন্য। আমরা আশা রাখি ভবিষ্যতে আর ২০ ভাগ চুক্তি বাস্তবায়ন করবেন। আপনার প্রতিনিধি এক কথা বলে, আপনি এক কথা বলেন, আসলে আপনার  মিথ্যাচার করা ছাড়া আর কোন কাজ নেই। এ ধরনের মিথ্যাচার করা হলে ভবিষ্যতে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে। তিনি আরো বলেন, অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মানুষকে বোকা বানানো যাবে না। মানুষ বুঝতে শিখেছে, অস্ত্র বাজদের কিভাবে মোকাবেলা করতে হয়। জনতার জোয়ার যেদিন ফুঁসে উঠবে সেদিন পালানোর পথ খুঁজে পাবেন না।

“বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সকল অগ্রযাত্রায় নারীদের সম্পৃক্ত করুন” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মহিলা আওয়ামীলীগের ৪৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে শনিবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে রাঙামাটি মহিলা আওয়ামীলীগের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন।

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও রাঙামাটি মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী জেসমিন ফিরোজা বেগম চিনুর সভাপতিত্বে এবং যুগ্মসম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য জেবুন্নেছা রহিমের সঞ্চলনায় এসময় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক অভয় প্রকাশ চাকমা, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল মাওলা, সদস্য জাহিদ আকতার, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মনসুর আলী, কৃষকলীগ নেতা উদয় শংকর, ৭,৮,৯, নবনির্বাচিত পৌর মহিলা সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর জুবাইতুন নাহার, ১,২,৩, এর কাউন্সিলর রূপসী দাশ প্রমুখ।

দীপংকর আরো বলেন, পাহাড়ে চাঁদাবাজি করে চাঁদাবাজ হওয়া যায় কিন্তু জন মানুষের নেতা হওয়া যায় না। পাহাড়ি নারীদের আওয়ামীলীগের যোগদানে সাহসিকতার প্রশংসা করে বলেন, আপনাদের সাহসিকতা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। সকল ভয় ও প্রতিবন্ধিকতাকে এড়িয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করার জন্য। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগের কোন নেতা পাহাড়ি সংগঠন জেএসএসে যোগদান করেন না কিন্তু জেএসএসের নেতা ও সমর্থকরা আওয়ামীলীগের পতাকা তলে সামিল হয়। কারণ আওয়ামীলীগ অসা¤প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাস করে। এ দলে সকল জাতি,বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে গণ মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করে। তিনি আরো বলেন, নারীদের উন্নয়নের জন্য বর্তমান সরকার অত্যন্ত দায়িত্বশীল। নারীদের এগিয়ে নিতে সরকার বদ্ধপরিকর। বক্তব্য শেষে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটা হয়।

সম্পাদনা- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান