রাঙামাটিরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিতের মাধ্যমে পুলিশ জনগণের প্রিয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে: পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ

42

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটিতে নবাগত পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ বলেছেন, রাঙামাটিতে বসবাসকারী সকল নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে রাঙামাটি জেলাকে একটি নিরাপদ আবাসস্থল গড়ে তোলাই হবে আমার মূল লক্ষ। এ জন্য জেলার প্রত্যেক পুলিশ সদস্যের সততা, বিশ্বস্ততা এবং পেশাদারিত্ব নিশ্চিত করাই হবে আমার কাজ। আমার পুলিশ সদস্যরা নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার মাধ্যমে রাঙামাটি জেলা পুলিশকে রাঙামাটিবাসীর গর্বের প্রতিষ্ঠানে করবে বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন রাঙামাটিতে নবযোগদানকৃত পুলিশ সুপার।

দায়িত্ব গ্রহণের পর রাঙামাটিতে তার প্রথম কর্মদিবসেই জেলার গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে মত বিনিময় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি সাংবাদিকরাই এলাকার চোখ। তাদের মাধ্যমেই এ জেলার একটি সার্বিক চিত্র অবলোকন করা সম্ভব। তাই আমি প্রথমেই সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তাদের কাছ থেকে নানা খুটিনাটি বিষয় জানতে পারবো এবং এতে আমার অফিসারদের সাথে কথা বলার সময় প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান সহজ হবে।

এসপি মীর তৌহিদ বলেন, নারীরা ডিজিটাল মাধ্যমে নানাভাবে হেনস্থার শিকার হয়। আমি চেষ্টা করবো রাঙামাটির নারীদের জন্য আলাদা একটি হেল্পডেক্স চালু করে তাদের বিষয়ে হওয়া সাইবার অপরাধগুলো দ্রততার সাথে আমলে নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ। নারীরা এই হেল্প ডেক্সের মাধ্যমে যাতে দ্রুত সেবা পায় সেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে দৃঢ় মতামত ব্যক্ত করেন তিনি।

রাঙামাটিতে পুলিশ সুপার হিসেবে যোগদানের দ্বিতীয় দিন সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) কর্মরত গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে মতবিনিময়কালে নবাগত পুলিশ সুপার এসব প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। দীর্ঘ আলোচনায় পুলিশ সুপার, সাংবাদিকদের জন্য দ্রুত তথ্য প্রবাহ নিশ্চিত করা, ওয়াটসএ্যাপ গ্রুপের মাধ্যমে অনিশ্চয়তা দূর করা, মোটর সাইকেল চুরি রোধ, অবৈধ পার্কিংসহ ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটানো, সশস্ত্র তৎপরতা বন্ধে তৎপর থাকা, যানজট নিরসন এবং পর্যটকদের যাতায়াত নিরাপদ ও নির্বিঘœ করাসহ বিট পুলিশিং সেবাই জোরদারের মাধ্যমে জনগণ ও পুলিশের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরির উপর জোর দেন। মাদকের বিষয়ে বর্তমান পুলিশ সুপারের সবসময় জিরো থাকবে উল্লেখ করে এসপি বলেন, এ জন্য শহরের ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা স্থাপন প্রকল্পের কাজ ত্বরান্বিত করা হবে।

ওইদিন বিকেলে পুলিশ সুপার কার্যলয়ে অনিষ্ঠিত মতবিনিময়েকালে রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মারুফ আহামেদ, অতিরিক্ত পুলিশ (ডিএসবি) ওয়াহিদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহিদুর রহমান, দৈনিক গিরিদর্পণ পত্রিকার সম্পাদক আলহাজ্ব একেএম মকছুদ আহমেদ, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হক, প্রবীণ সাংবাদিক সুনীল কান্তি দেসহ রাঙামাটিতে কর্মরত প্রায় অর্ধশত গণমাধ্যমকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় রাঙামাটি প্রেসক্লাবের পক্ষ গতে নাবাগত পুলিশ সুপারকে ফুলদিয়ে স্বাগত জানানো হয়।

মতবিনিমকালে সাংবাদিকদের সাথে পুলিশের সম্পর্ক আরো নীবিড় করে গড়ে তুলে একটি সম্মৃদ্ধশীল রাঙামাটি গঠনে কাজ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করা হয়েছে সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে।