রাঙামাটির নবনির্বাচিত পৌর মেয়র আকবর হোসেন চৌধুরী : মাঠ পর্যায়ের এক নেতা

539

p.....5

আলমগীর মানিক ১ জানুয়ারি ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : প্রথম শ্রেণির পৌরসভা রাঙামাটির নতুন নগর পিতা নির্বাচিত হয়েছেন জেলা যুবলীগের সভাপতি আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আকবর হোসেন চৌধুরী। তিনি তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী ডা. গঙ্গা মানিক চাকমাকে প্রায় আট হাজার ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে জয়লাভ করেন। এর আগে রাঙামাটি পৌরসভার ইতিহাসে এতো বিপুল ভোটের ব্যবধানে কোনো চেয়ারম্যান কিংবা মেয়র নির্বাচিত হননি।

আকবর হোসেন চৌধুরী আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের একজন কর্মী। পারিবারিকভাবে আওয়ামী লীগ পরিবারের সন্তান। ছাত্রাবস্থা থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করে যাচ্ছেন। ৮৯ সালে রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। ৯০ ও ৯১ সালে কালিন্দিপুর আঞ্চলিক শাখার সাধারন সম্পাদক হন। ৯২ সালে বৃহত্তর বনরুপা ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি ও ৯৪ সালে রাঙামাটি সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হন। ৯৬ ও ৯৭ সালে রাঙামাটি সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হন। ২০০০ সালে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ২০০৪ সালে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। ২০০৭ সালে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সঞ-সভাপতি ও ২০১২ সাল থেকে রাঙামাটি জেলা যুবলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সর্বশেষ গত ৩০ ডিসেম্বর পর্যটন নগরী প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হিসেবে রাঙামাটি পৌর সভার ১৮তম মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

রাজনীতির পাশাপশি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাঙামাটি জেলা ইউনিটের ২০১২-২০১৪ সালের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। স্কুলজীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত তরুণ এই নেতার সাথে দলের হাই কমান্ডের সাথে রয়েছে ঘনিষ্ট যোগাযোগ। দলের যে কোনো কাজে ও সিদ্ধান্তে তাঁর অংশ গ্রহণ  থাকে চোখে পড়ার মত। রাঙামাটি আওয়ামীলীগের আগামী দিনের কর্ণধার ভাবা হয় তাকে। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ কিংবা কাজ করলেও এবারই প্রথম সরাসরি জনপ্রতিনিধি হিসেবে তিনি লড়াই করছেন। আর প্রথমবারের নির্বাচনেই বিপুল ভোটে জয়লাভ হয়েছেন।

২০১১ সালের পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী আব্দুল মতিনের পরাজয়ের পর থেকেই আকবর হোসেন চৌধুরী মাঠে পড়ে থাকেন। মেয়র পদকে টার্গেট করে তিনি সামাজিক কার্যক্রমের পরিধি ও রাজনৈতিক কর্মকান্ড আরো বেশি গতিশীল করেন। এই সময় তিনি যুবলীগের সভাপতিও নির্বাচিত হন।

শুধু জয়ী হওয়া নয়, এবার পৌর এলাকার উন্নয়নে নিজেকে শতভাগ ঢেলে দিতে প্রস্তুত বলে জানান তিনি। নতুন পৌর পিতা আকবর হোসেন চৌধুরী প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া পৌরবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আগামী তার কর্মকান্ডে সকলকে পাশে থাকার অনুরোধ জানান। সকলকে নিয়েই তিনি পৌরসভার কর্মকান্ড পরিচালনা করতে চান।

তবে রাঙামাটিবাসীও দেখতে চায় আগামী দিনে আকবর হোসেন চৌধুরী নতুন আর কি চমক দেখান।

পোস্ট- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান।