রাঙামাটির স্বাস্থ্যসেবা বঞ্চিতরা গণশুনানিতে প্রতিকার চাইল

466

dc-pic-23-11-16-1

॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥

রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সাপ্তাহিক গণশুনানীর চতূর্থ অধিবেশনে বুধবার অভিযোগকারী জেলার অপ্রতুল স্বাস্থ্যসেবা, রাস্তা দখল করে ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান নির্মাণ এবং স্থানীয় এনজিও’র বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ তুলে ধরেন জেলার কর্ণধার জেলা প্রশাসক সমীপে।

এ সময় গণশুনানীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের অভিযোগও জানান কেউ কেউ। জেলা প্রশাসন সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত গণশুনানিতে এদিন ১২ ভুক্তভোগী তাদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান স্বয়ং গণশুনানীতে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া জেলায় স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক প্রকাশ কান্তি চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু শাহেদ চৌধুরী, সহকারি কমিশনার খোন্দকার মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন আহমদসহ সেবা প্রত্যাশীগন উপস্থিত ছিলেন।

গনশুনানিতে রফিকুল ইসলাম নামের এক ভূক্তভোগী কাউখালী উপজেলায় প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, এ উপজেলায় স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা বরাবরই অত্যন্ত নাজুক। যারা স্বাস্থ্য বিভাগে কাজ করেন তারা কার্যালয়ে নিয়মিত এবং দায়িত্বের ব্যপারেও মনযোগী নন। তিনি এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রতিকারের আবেদন জানান।

রিপন সাহা, মোঃ হোসেন ও চানবানু নামের তিন ভুক্তভোগী হয়রানির অভিযোগ আনেন স্থানীয় এনজিও সিসিডিআরের বিরুদ্ধে। তারা অভিযোগ করে বলেন, আমরা ভবিষ্যত সুখের আশায় অনেক কষ্টে টাকা জমা করেছিলাম কিন্তু মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পরও আমাদের প্রাপ্য টাকা দিতে গড়িমসি করছে। বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে সিসিডিআর কর্তৃপক্ষ।

রিজার্ভ বাজারের মোঃ কামাল উদ্দিন সরকারি রাস্তা দখল করে ভবন নির্মাণের অভিযোগ আনেন। অপর সাতজন পরিবার, প্রতিবেশি ও প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি দখলের বিষয়ে অভিযোগ আনেন।

পরে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান সেবা প্রত্যাশীদের আনীত অভিযোগ তাঁর অধীন স্ব-স্ব কর্মকর্তা বা জনপ্রতিনিধি মাধ্যমে যতদ্রুত সম্ভব সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় গ্রহণের আশ্বাস দেন।