রাঙামাটির ১৯ রুটে ২০ জুলাই থেকে পরিবহণ ধর্মঘটের হুমকি

262

 

Bus stricke॥ স্টাফ রিপোর্টার ॥ বড়ইছড়ি সড়কে ঘাঘড়ার অদূরে ভেঙ্গেপড়া ব্রীজটি জরুরী ভিত্তিতে সংস্কারসহ পাঁচ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে রাঙামাটির ১৯টি রুটে অনির্দিষ্ট কালের পরিবহণ ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছে চট্টগ্রাম রাঙামাটি মোটর মালিক সমিতি। রাঙামাটি চট্টগ্রাম সড়কে বিআরটিসি বাস বন্ধ করাসহ এই পাঁচ দফা দাবি জানিয়ে তারা ইতোমধ্যে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি স্মারকলিপিও প্রেরণ করেছে বলে জানায় সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ। স্মারকলিপিতে ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে দাবি পুরণের আল্টিমেটাম ঘোষণা করা হয়।

সমিতির সভাপতি মোঃ মঈন উদ্দিন সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ আব্দুর রহমান স্বাক্ষরিত প্রেস বিক্ষপ্তিতে জানানো হয় যে, দীর্ঘদিন যাবত চট্টগ্রাম রাঙামাটি মোটর মালিক সমিতি তাদের পাঁচদফা দাবি পুরণের জন্য প্রশাসনের কাছ বারবার ধর্ণা দিয়েও কোনো সমাধান পায়নি। বাধ্য হয়ে তারা শনিবার অনুষ্ঠিত সংগঠনের এক জরুরী সভা থেকে এই আল্টিমেটাম প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়। সমিতির সভাপতি মঈন উদ্দিন সেলিম জানান, কর্মসূচি পালনকালে সাধারণ যাত্রিরা যাতে আকস্মিক হয়রানির কবলে না পড়ে, তাই আমরা চারদিন আগেই বিষয়টি প্রশাসন ও গণমাধ্যমের গোচরে এনেছি। ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে আমাদের দাবি পুরণ করা হলে কর্মসূচি স্থগিত করা হবে বলেও জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক বরাবরে প্রেরীত পত্রে উল্লেখিত দাবি নামা সমূহের মধ্যে রয়েছে, (১) জনস্বার্থে পাহাড়িকা গাড়ি চচট্টগ্রাম শহরের নিউ মার্কেট পর্যন্ত চলাচলের অনুমতি প্রদান (২) জরুরি ভিত্তিতে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কে বিআরটিসি বাস সার্ভিস বন্ধ করা, (৩) রাঙামাটি-বড়ইছড়ি- রাজস্থলী-বান্দরবান রুটে বন্ধ থাকা রাস্তা মেরামত করে নিরাপদ ও নির্বিঘেœ গাড়ি চলাচলের ব্যবস্থা গ্রহণ, (৪)রাঙামাটি কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের অবৈধ দখল উচ্ছেদসহ শ্রমিক ও যানবাহনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এবং (৫) যত্রতত্র গাড়ির রিকুইজিশন বন্ধ করা। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে অতি শ্রীঘ্র সমিতির এসব দাবি পুরণের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।