রাঙামাটি আদালতে জেএমবির শীর্ষ নেতা ড. গালীব

249

p.....4-1

স্টাফ রিপোর্টার, ১ মার্চ ২০১৬, দৈনিক রাঙামাটি : ২০০১ সালে আটক নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জামায়াতুল মোজাহেদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)র শীর্ষ নেতা শামীম হোসেন গালীবকে রাঙামাটির আদালতে হাজির করেছে পুলিশ। সোমবার বিস্ফোরক দ্রব্য আইনের মামলায় সাতক্ষীরা থেকে রাঙামাটির চীফ জেলা ও দায়রা জজ আদালতে গালিবকে হাজির করা হয়। এসময় মামলার শুনানী শেষে রাঙামাটির সহকারি জেলা ও দায়রা জজ আজিজুল হকের আদালত আগামী ২৫ এপ্রিল মামলায় স্বাক্ষ্য গ্রহনের দিন ধার্য করে তাকে ফের কারাগারে প্রেরণ করার নির্দেশ দিয়েছেন। এরআগে আজ মঙ্গলবার কড়া পুলিশী প্রহরায় জেএমবির এই শীর্ষ নেতাকে রাঙামাটির আদালতে হাজির করে পুলিশ।

মামলার আসামী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট মোঃ নুরুল হক জানান, ২০০১ সালে রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় বিষ্ফোরক আইনে মামলা দায়েরের পর দীর্ঘ ১৫ বছরে রাষ্ট্র পক্ষ কোন স্বাক্ষী আনতে পারেননি। তাই মামলার বিচার কাজ বিলম্বিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আসামী দীর্ঘ বৎসর ধরে কারাগারে আটক রয়েছে। আদালত রাষ্ট্র ও আসামী পক্ষের শুনানী শেষে স্বাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ২৫ এপ্রিল মামলার পরবর্তী দিন ধার্য্য করেন।

উল্লেখ্য ২০০১ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে হোটেল ড্রীমল্যান্ডে জেএমবির শীর্ষ নেতা শামীম হোসেন গালিব অবস্থান করে বোমা তৈরীর সময় বিষ্ফোরণ ঘটে। এ বিষ্ফোরণে মোবার আঘাতে জেএমবি শীর্ষ নেতা শামীম হোসেন গালীব সহ নছরুলা ওরফে আরিফ বিল্লা সহ অপর এক আহত হয়। সে সময় আহত দুই জনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় রাঙামাটি থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠানো হয়। পরে সেনা বাহিনী ও পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বোমা তৈরীর সরঞ্জাম ও  বিষ্ফোরণের বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে এই মামলা দায়ের করা হয়।

পোস্ট করেনন- শামীমুল আহসান, ঢাকা ব্যুরোপ্রধান