রাঙামাটি প্রেসক্লাবে জাতির পিতার শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা

320

রিপোর্ট রাঙামাটি

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৬ আগষ্ট) বিকেল ৩টায় রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেলের সভাপতিত্বে ও প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোক সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক আলহাজ্ব এ কে এম মকছুদ আহমেদ। এ ছাড়াও এফপিএবির সভাপতি মুজিবুর রহমান দীপু, প্রবীণ সাংবাদিক সৈয়দ মাহবুব আহমদ, মোঃ আলী, মনসুর আহম্মেদ, মোহাম্মদ সোলায়মান, ইয়াছিন রানা সোহেল এতে বক্তব্য রাখেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলাপ্রশাসক মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের স্বাধীনতা বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু একই সূত্রে গাঁথা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু যদি স্বাধীনতার স্বপ্ন না দেখতেন আজ আমরা এবং এই জাতি কোথায় থাকতো তা কল্পনা করে দেখুন। ৭৫ এ এক গভির ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে জাতির পিতাকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করে এই জাতিকে দমিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। তারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই ক্ষ্যান্ত হয়নি, ইতিহাস বিকৃতির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলার য়ড়যন্ত্র করেছিল। কিন্তু জাতির প্রমাণ করেছে ষড়যন্ত্র করে কোনো কালজয়ী নেতাকে যেমন মুছে ফেলা যায়না, তেমনি কোনো জাতিকেও দমিয়ে রাখা যায়না। আজকে বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক অগ্রগতি তার বড় প্রমাণ।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মানের যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সভায় বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বের অনেক দেশকে পিছনে রেখে অনেকদুর এগিয়ে গেছে। উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহবান জানানো হয়। সভার শুরুতে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ নিহত সকল সদস্যের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে শহীদ আত্মার শান্তি কামনায় মিলাদ দোয়া ও তাবারুক বিতরণের মধ্য দিয়ে সভা শেষ হয়।